বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ৫ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কমলগঞ্জে মাদক কারবারিদের হামলায় আহত -৩

মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জ পৌরসভার ২নং ওয়ার্ড বড়গাছ গ্রামে প্রতিপক্ষের হামলায় ৪ জন আহত হয়েছেন। প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন সুন্দর মিয়া, সাফারুন বেগম, রমজান মিয়া এবং গুরুতর আহত দায়ের কুপে মাথায় আঘাত প্রাপ্ত রক্তাক্ত জখমী রহমান মিয়া কমলগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি আছেন।
ঘটনাটি গত সোমবার ( ২৬ ফ্রেব্রুয়ারী) সকাল ১১টার  সময় রহমান মিয়া পৌরসভার ১নং ওয়ার্ড গোপালনগর নিজের ভুমি পরিদর্শন করতে গিয়ে দেখেন বড় কয়েকটি গাছ কাটা হয়েছে। এনিয়ে এলাকার চিহ্নিত মাদক কারবারি রাজা মিয়া, রাজু মিয়া, বাদশা মিয়া গংদের সাথে কথাকাটাকাটি হলে তাকে একা পেয়ে মারধরের এক পর্যায়ে মাথায় দা দিয়ে কুপ দিয়ে রক্তাক্ত জখম করে পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে রহমান মিয়ার পিতা সুন্দর মিয়া মাতা সাফারুন বেগম এবং ভাই রমজান মিয়া এগিয়ে আসলে তাদের উপর হামলা লিলাফুলা ও রক্তাক্ত জখম করে।
পরে তারা কমলগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক  চিকিৎসা নেন। বিবাদীদের বাড়ির পাশে থাকা আহত রহমান মিয়া গংদের থাকা ভুমি জবর দখল নিতে দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন চক্রান্ত ষড়যন্ত্র হামলা মামলায় লিপ্ত রয়েছে। এরা ভুমি জোরপূর্বক ভোগ দখল নিতে বিভিন্ন প্রকার হয়রানী করে আসছে।
খবর পেয়ে রাতে হাসপাতালে ছুটে আসেন কমলগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মো: জুয়েল আহমদ সহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ।
এঘটনায় কমলগঞ্জ থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

কমলগঞ্জে মাদক কারবারিদের হামলায় আহত -৩

প্রকাশের সময় : ১০:০২:২৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জ পৌরসভার ২নং ওয়ার্ড বড়গাছ গ্রামে প্রতিপক্ষের হামলায় ৪ জন আহত হয়েছেন। প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন সুন্দর মিয়া, সাফারুন বেগম, রমজান মিয়া এবং গুরুতর আহত দায়ের কুপে মাথায় আঘাত প্রাপ্ত রক্তাক্ত জখমী রহমান মিয়া কমলগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি আছেন।
ঘটনাটি গত সোমবার ( ২৬ ফ্রেব্রুয়ারী) সকাল ১১টার  সময় রহমান মিয়া পৌরসভার ১নং ওয়ার্ড গোপালনগর নিজের ভুমি পরিদর্শন করতে গিয়ে দেখেন বড় কয়েকটি গাছ কাটা হয়েছে। এনিয়ে এলাকার চিহ্নিত মাদক কারবারি রাজা মিয়া, রাজু মিয়া, বাদশা মিয়া গংদের সাথে কথাকাটাকাটি হলে তাকে একা পেয়ে মারধরের এক পর্যায়ে মাথায় দা দিয়ে কুপ দিয়ে রক্তাক্ত জখম করে পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে রহমান মিয়ার পিতা সুন্দর মিয়া মাতা সাফারুন বেগম এবং ভাই রমজান মিয়া এগিয়ে আসলে তাদের উপর হামলা লিলাফুলা ও রক্তাক্ত জখম করে।
পরে তারা কমলগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক  চিকিৎসা নেন। বিবাদীদের বাড়ির পাশে থাকা আহত রহমান মিয়া গংদের থাকা ভুমি জবর দখল নিতে দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন চক্রান্ত ষড়যন্ত্র হামলা মামলায় লিপ্ত রয়েছে। এরা ভুমি জোরপূর্বক ভোগ দখল নিতে বিভিন্ন প্রকার হয়রানী করে আসছে।
খবর পেয়ে রাতে হাসপাতালে ছুটে আসেন কমলগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মো: জুয়েল আহমদ সহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ।
এঘটনায় কমলগঞ্জ থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।