বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ৫ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

পুলিশ দেশের প্রয়োজনে সর্বোচ্চ নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালনের প্রমাণ দিয়েছে : মন্ত্রিপরিষদ সচিব

মন্ত্রিপরিষদ সচিব মো: মাহবুব হোসেন বলেছেন, বাংলাদেশ পুলিশ দেশের প্রয়োজনে সর্বোচ্চ নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালনের প্রমাণ দিতে সক্ষম হয়েছে।

তিনি বলেন, সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান হিসেবে বাংলাদেশ পুলিশ প্রথম সারিতে রয়েছে। পুলিশ সপ্তাহ-২০২৪ এর দ্বিতীয় দিন আজ বুধবার রাতে রাজারবাগ পুলিশ লাইনসে আয়োজিত এক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

ইন্সপেক্টর জেনারেল অব পুলিশ (আইজিপি) চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন এর সভাপতিত্বে এ মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন- স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের সিনিয়র সচিব মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান। স্বাগত বক্তব্য রাখেন মতবিনিময় সভা বাস্তবায়ন উপকমিটির সভাপতি ও অতিরিক্ত আইজিপি দেবদাস ভট্টাচার্য।

অনুষ্ঠানে অতিরিক্ত আইজিপি (প্রশাসন) মোঃ কামরুল আহসান, র‌্যাব মহাপরিচালক এম খুরশীদ হোসেন, এসবির অতিরিক্ত আইজিপি মোঃ মনিরুল ইসলাম এবং পুলিশ সুপার থেকে তদূর্ধ্ব কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন,এবারের পুলিশ সপ্তাহের প্রতিপাদ্য ‘স্মার্ট পুলিশ স্মার্ট দেশ, শান্তি প্রগতির বাংলাদেশ’ আমাকে আকৃষ্ঠ করেছে।  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা  ডিজিটাল বাংলাদেশ থেকে স্মার্ট বাংলাদেশ গঠনের ঘোষণা করেছেন। স্মার্ট বাংলাদেশ গঠনে অন্যতম অভিযাত্রী বাংলাদেশ পুলিশ।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব আরও  বলেন, এবারের পুলিশ সপ্তাহের বাণীতে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, ‘দেশপ্রেম এবং পেশাদারিত্বের পরীক্ষায় বাংলাদেশ পুলিশ বার বার উত্তীর্ণ হয়েছে।’ এটা আপনাদের জন্য বড় স্বীকৃতি।

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন শান্তিপূর্ণ পরিবেশে অনুষ্ঠানের জন্য তিনি পুলিশ কর্মকর্তাদের ধন্যবাদ জানান।পুলিশ কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, দায়িত্ব পালনের ক্ষেত্রে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে হবে।

সিনিয়র সচিব মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, জনগণকে সেবা প্রদানের ক্ষেত্রে বাংলাদেশ পুলিশের বিভিন্ন বিষয়ের যৌক্তিক সমাধানে সরকার আন্তরিক।

আইজিপি চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন বলেন, সাধারণ মানুষকে স্বাচ্ছন্দ্য দিতে  পুলিশ দায়িত্ব পালন করে থাকে। প্রধানমন্ত্রী পুলিশের জনবল বৃদ্ধি করেছেন, লজিস্টিক সাপোর্ট  বাড়িয়েছেন, প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করেছেন। ফলে জঙ্গিবাদ সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত ‘জিরো টলারেন্স’ নীতির আলোকে পুলিশ সফলভাবে জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাস দমন করতে সক্ষম হয়েছে।
তিনি জনগণকে কাঙ্খিত মাত্রায় সেবা দিতে পুলিশ কর্মকর্তাদেরকে নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালনের আহ্বান জানান।

পুলিশ দেশের প্রয়োজনে সর্বোচ্চ নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালনের প্রমাণ দিয়েছে : মন্ত্রিপরিষদ সচিব

প্রকাশের সময় : ১০:১৩:৪৫ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

মন্ত্রিপরিষদ সচিব মো: মাহবুব হোসেন বলেছেন, বাংলাদেশ পুলিশ দেশের প্রয়োজনে সর্বোচ্চ নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালনের প্রমাণ দিতে সক্ষম হয়েছে।

তিনি বলেন, সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান হিসেবে বাংলাদেশ পুলিশ প্রথম সারিতে রয়েছে। পুলিশ সপ্তাহ-২০২৪ এর দ্বিতীয় দিন আজ বুধবার রাতে রাজারবাগ পুলিশ লাইনসে আয়োজিত এক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

ইন্সপেক্টর জেনারেল অব পুলিশ (আইজিপি) চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন এর সভাপতিত্বে এ মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন- স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের সিনিয়র সচিব মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান। স্বাগত বক্তব্য রাখেন মতবিনিময় সভা বাস্তবায়ন উপকমিটির সভাপতি ও অতিরিক্ত আইজিপি দেবদাস ভট্টাচার্য।

অনুষ্ঠানে অতিরিক্ত আইজিপি (প্রশাসন) মোঃ কামরুল আহসান, র‌্যাব মহাপরিচালক এম খুরশীদ হোসেন, এসবির অতিরিক্ত আইজিপি মোঃ মনিরুল ইসলাম এবং পুলিশ সুপার থেকে তদূর্ধ্ব কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন,এবারের পুলিশ সপ্তাহের প্রতিপাদ্য ‘স্মার্ট পুলিশ স্মার্ট দেশ, শান্তি প্রগতির বাংলাদেশ’ আমাকে আকৃষ্ঠ করেছে।  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা  ডিজিটাল বাংলাদেশ থেকে স্মার্ট বাংলাদেশ গঠনের ঘোষণা করেছেন। স্মার্ট বাংলাদেশ গঠনে অন্যতম অভিযাত্রী বাংলাদেশ পুলিশ।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব আরও  বলেন, এবারের পুলিশ সপ্তাহের বাণীতে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, ‘দেশপ্রেম এবং পেশাদারিত্বের পরীক্ষায় বাংলাদেশ পুলিশ বার বার উত্তীর্ণ হয়েছে।’ এটা আপনাদের জন্য বড় স্বীকৃতি।

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন শান্তিপূর্ণ পরিবেশে অনুষ্ঠানের জন্য তিনি পুলিশ কর্মকর্তাদের ধন্যবাদ জানান।পুলিশ কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, দায়িত্ব পালনের ক্ষেত্রে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে হবে।

সিনিয়র সচিব মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, জনগণকে সেবা প্রদানের ক্ষেত্রে বাংলাদেশ পুলিশের বিভিন্ন বিষয়ের যৌক্তিক সমাধানে সরকার আন্তরিক।

আইজিপি চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন বলেন, সাধারণ মানুষকে স্বাচ্ছন্দ্য দিতে  পুলিশ দায়িত্ব পালন করে থাকে। প্রধানমন্ত্রী পুলিশের জনবল বৃদ্ধি করেছেন, লজিস্টিক সাপোর্ট  বাড়িয়েছেন, প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করেছেন। ফলে জঙ্গিবাদ সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত ‘জিরো টলারেন্স’ নীতির আলোকে পুলিশ সফলভাবে জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাস দমন করতে সক্ষম হয়েছে।
তিনি জনগণকে কাঙ্খিত মাত্রায় সেবা দিতে পুলিশ কর্মকর্তাদেরকে নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালনের আহ্বান জানান।