রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ছুটিতে আসা মোজাম্বিক প্রবাসীদের মিলন মেলা ও বনভোজন সম্পন্ন

মোজাম্বিক বাঁশখালীয়ান প্রবাসীদের মধ্যে ভ্রাতৃত্ব বন্ধনের ঐক্য আরও দৃঢ় করার প্রত্যয়ের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠিত হয়ে গেল মোজাম্বিক প্রবাসী বাংলাদেশে আগত বাঁশখালীয়ান অন্যতম আঞ্চলিক সংগঠন মোজাম্বিক বাঁশখালী গ্রুপের বনভোজন ও মিলনমেলা ২০২৪। রবিবার (৩ মার্চ )বাঁশখালী সমুদ্র সৈকতের পর্যটন কেন্দ্র বাহারচড়ায় আনন্দঘন ও উৎসবমুখর পরিবেশে বনভোজনটি অনুষ্ঠিত হয়। বাঁশখালীর বিভিন্ন জায়গা থেকে সিএনজি ও নিজস্ব পরিবহন নিয়ে বাঁশখালীয়ান মোজাম্বিক প্রবাসী সদস্যরা পরিবারের সদস্যদের নিয়ে মিলন মেলা ও বনভোজনে অংশ গ্রহন করেন।
দুপুরে খাওয়া দাওয়ার পর বিভিন্ন কর্মসূচি শুরু হয় । যার মধ্যে কুইজ , লটারি ড্র , বিভিন্ন খেলাধুলা পুরস্কার বিতরণসহ নানা ব্যতিক্রমি আয়োজন।
অনুষ্ঠানের আয়োজনের প্রক্ষাপট তু্লে ধরে বক্তব্য রাখেন বাঁশখালীর কৃতি সন্তান বাংলাদেশ মোজাম্বিক কমিনিটির আহবায়ক ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আলহাজ্ব আনিছুর রহমান ,মোজাম্বিকের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী সিকান্দার নূরী, মোজাম্বিকের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী সিরাজুল ইসলাম ,মোজাম্বিকেরর বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আক্তার হোসেন, বাঁশখালী প্রবাসী ঐক্য পরিষদের প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক এম আর মুজিব, সাংবাদিক শিব্বির আহমদ, মিজান বিন তাহের ,ছাত্রলীগ নেতা মিজান সিকদার, শহিদুল ইসলাম,গিয়াস উদ্দিন,আরিফুল ইসলাম,মোরশেদুল আলম মিশু ।
অনুষ্ঠানে উপস্থিত থেকে শুভেচ্ছা বত্তব্য রাখেন ,আমির হোসেন,রুবেল,সেলিম হাসিব,ফারুক ,আরিফসাইফুল ,হালিম,রুহুল কফিল,দিদার,রিদুয়ানুল কবির,আরফাত ,আবু ছৈয়দ,জিতু, একুশে ফাউন্ডেশন এর প্রতিষ্ঠাতা শামিম উল্লাহ আদিল, জসিম,রহিম, এসময় প্রবাসীদের পরিবার সহ উপস্থিত ছিলেন।
আয়োজক ও উদ্যোক্তা বাঁশখালী প্রবাসী ঐক্য পরিষদ এর প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক মোজাম্বিক প্রবাসী এম আর মুজিব বলেন, বাঁশখালীতে একঝাক মোজাম্বিক প্রবাসীদের নিয়ে বাঁশখালীর মোজাম্বিক প্রবাসদের এই নিয়ে তৃতীয় বার দেশে মিলন মেলার আয়োজন করা হয়েছে।তিনি আরো বলেন মিলন মেলাকে স্মরণীয় করে রাখার জন্য মনোমুগ্ধকর ব্যতিক্রমী সব কর্মসূচি । পরিবার সহ মিলন মেলায় উপস্থিত হওয়ার জন্য সবাইকে কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানান। আগামীতেও এই রকম বনভোজন বা মিলন মেলার আয়োজন করা হবে বলে জানান।অতিথি ও প্রবাসীরা সুন্দর, নির্মল, আনন্দদায়ক একটি বনভোজন আয়োজনের জন্য আয়োজক ও উদ্যোক্তা দের ধন্যবাদ জানান।

ছুটিতে আসা মোজাম্বিক প্রবাসীদের মিলন মেলা ও বনভোজন সম্পন্ন

প্রকাশের সময় : ১০:৩১:০১ অপরাহ্ন, রবিবার, ৩ মার্চ ২০২৪
মোজাম্বিক বাঁশখালীয়ান প্রবাসীদের মধ্যে ভ্রাতৃত্ব বন্ধনের ঐক্য আরও দৃঢ় করার প্রত্যয়ের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠিত হয়ে গেল মোজাম্বিক প্রবাসী বাংলাদেশে আগত বাঁশখালীয়ান অন্যতম আঞ্চলিক সংগঠন মোজাম্বিক বাঁশখালী গ্রুপের বনভোজন ও মিলনমেলা ২০২৪। রবিবার (৩ মার্চ )বাঁশখালী সমুদ্র সৈকতের পর্যটন কেন্দ্র বাহারচড়ায় আনন্দঘন ও উৎসবমুখর পরিবেশে বনভোজনটি অনুষ্ঠিত হয়। বাঁশখালীর বিভিন্ন জায়গা থেকে সিএনজি ও নিজস্ব পরিবহন নিয়ে বাঁশখালীয়ান মোজাম্বিক প্রবাসী সদস্যরা পরিবারের সদস্যদের নিয়ে মিলন মেলা ও বনভোজনে অংশ গ্রহন করেন।
দুপুরে খাওয়া দাওয়ার পর বিভিন্ন কর্মসূচি শুরু হয় । যার মধ্যে কুইজ , লটারি ড্র , বিভিন্ন খেলাধুলা পুরস্কার বিতরণসহ নানা ব্যতিক্রমি আয়োজন।
অনুষ্ঠানের আয়োজনের প্রক্ষাপট তু্লে ধরে বক্তব্য রাখেন বাঁশখালীর কৃতি সন্তান বাংলাদেশ মোজাম্বিক কমিনিটির আহবায়ক ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আলহাজ্ব আনিছুর রহমান ,মোজাম্বিকের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী সিকান্দার নূরী, মোজাম্বিকের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী সিরাজুল ইসলাম ,মোজাম্বিকেরর বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আক্তার হোসেন, বাঁশখালী প্রবাসী ঐক্য পরিষদের প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক এম আর মুজিব, সাংবাদিক শিব্বির আহমদ, মিজান বিন তাহের ,ছাত্রলীগ নেতা মিজান সিকদার, শহিদুল ইসলাম,গিয়াস উদ্দিন,আরিফুল ইসলাম,মোরশেদুল আলম মিশু ।
অনুষ্ঠানে উপস্থিত থেকে শুভেচ্ছা বত্তব্য রাখেন ,আমির হোসেন,রুবেল,সেলিম হাসিব,ফারুক ,আরিফসাইফুল ,হালিম,রুহুল কফিল,দিদার,রিদুয়ানুল কবির,আরফাত ,আবু ছৈয়দ,জিতু, একুশে ফাউন্ডেশন এর প্রতিষ্ঠাতা শামিম উল্লাহ আদিল, জসিম,রহিম, এসময় প্রবাসীদের পরিবার সহ উপস্থিত ছিলেন।
আয়োজক ও উদ্যোক্তা বাঁশখালী প্রবাসী ঐক্য পরিষদ এর প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক মোজাম্বিক প্রবাসী এম আর মুজিব বলেন, বাঁশখালীতে একঝাক মোজাম্বিক প্রবাসীদের নিয়ে বাঁশখালীর মোজাম্বিক প্রবাসদের এই নিয়ে তৃতীয় বার দেশে মিলন মেলার আয়োজন করা হয়েছে।তিনি আরো বলেন মিলন মেলাকে স্মরণীয় করে রাখার জন্য মনোমুগ্ধকর ব্যতিক্রমী সব কর্মসূচি । পরিবার সহ মিলন মেলায় উপস্থিত হওয়ার জন্য সবাইকে কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানান। আগামীতেও এই রকম বনভোজন বা মিলন মেলার আয়োজন করা হবে বলে জানান।অতিথি ও প্রবাসীরা সুন্দর, নির্মল, আনন্দদায়ক একটি বনভোজন আয়োজনের জন্য আয়োজক ও উদ্যোক্তা দের ধন্যবাদ জানান।