মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১০ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

যশোরে মাদক মামলায় একজনের ১০ বছর কারাদণ্ড

  • যশোর অফিস
  • প্রকাশের সময় : ১০:১০:১৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২১ মার্চ ২০২৪
  • ২৫

প্রতীকী ছবি

যশোর অফিস

যশোরে একটি মাদক মামলার রায়ে যশোরের বেনাপোলের পোড়াবাড়ি গ্রামের রুহুল আমিনকে ১০ বছর সশ্রম কারাদন্ড ও অর্থদন্ডের আদেশ দিয়েছে যশোরের একটি আদালত।

বৃহস্পতিবার (২১ মার্চ) যশোরের অতিরিক্ত দয়রা জজ শিমুল কুমার বিশ্বাস এক রায়ের আদেশ দিয়েছেন।

মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণে জানা যায, ২০২০ সালের ৬ মার্চ রাতে জেলার শার্শা থানা পুলিশ কামারবাড়ি মোড় থেকে সন্দেহজনক ভাবে একটি কাভার্ড ভ্যান থেকে দুই জনকে আটক করে। আটক রুহুল আমিন ও ঝন্টুকে জিজ্ঞাসাবাদে কাভার্ড ভ্যান থেকে ৪৫০ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় আটক দুইজনের বিরুদ্ধে এসআই সৈয়দ রবিউল ইসলাম বাদী হয়ে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে শার্শা থানা মামলা করেন।

এ মামলার তদন্ত শেষে এসআই পবিত্র বিশ্বাস ওই দুইজনকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট জমা দেন। দীর্ঘ সাক্ষী গ্রহণ শেষে আসামি রুহুল আমিনের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমানিত হওয়ায় বিচারক তাকে ১০ বছর সশ্রম কারাদন্ড, পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও দুই মাসের কারাদন্ডের আদেশ দিয়েছেন। সাজাপ্রাপ্ত রুহুল আমিন কারাগারে আটক আছে। আর ঝন্টুকে আদালত বেকুসুর খালাস দেন।

যশোরে মাদক মামলায় একজনের ১০ বছর কারাদণ্ড

প্রকাশের সময় : ১০:১০:১৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২১ মার্চ ২০২৪

যশোর অফিস

যশোরে একটি মাদক মামলার রায়ে যশোরের বেনাপোলের পোড়াবাড়ি গ্রামের রুহুল আমিনকে ১০ বছর সশ্রম কারাদন্ড ও অর্থদন্ডের আদেশ দিয়েছে যশোরের একটি আদালত।

বৃহস্পতিবার (২১ মার্চ) যশোরের অতিরিক্ত দয়রা জজ শিমুল কুমার বিশ্বাস এক রায়ের আদেশ দিয়েছেন।

মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণে জানা যায, ২০২০ সালের ৬ মার্চ রাতে জেলার শার্শা থানা পুলিশ কামারবাড়ি মোড় থেকে সন্দেহজনক ভাবে একটি কাভার্ড ভ্যান থেকে দুই জনকে আটক করে। আটক রুহুল আমিন ও ঝন্টুকে জিজ্ঞাসাবাদে কাভার্ড ভ্যান থেকে ৪৫০ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় আটক দুইজনের বিরুদ্ধে এসআই সৈয়দ রবিউল ইসলাম বাদী হয়ে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে শার্শা থানা মামলা করেন।

এ মামলার তদন্ত শেষে এসআই পবিত্র বিশ্বাস ওই দুইজনকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট জমা দেন। দীর্ঘ সাক্ষী গ্রহণ শেষে আসামি রুহুল আমিনের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমানিত হওয়ায় বিচারক তাকে ১০ বছর সশ্রম কারাদন্ড, পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও দুই মাসের কারাদন্ডের আদেশ দিয়েছেন। সাজাপ্রাপ্ত রুহুল আমিন কারাগারে আটক আছে। আর ঝন্টুকে আদালত বেকুসুর খালাস দেন।