মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১০ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে রসাটম মহাপরিচালকের সাক্ষাৎ

ছবি-সংগৃহীত

রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় পারমাণবিক সংস্থা রসাটমের মহাপরিচালক (ডিজি) অ্যালেক্সি লিখাচেভ আজ সকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেছেন। এ বৈঠক থেকে রূপপুরেই দেশের দ্বিতীয় পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণের বিষয়ে ঘোষণা আসতে পারে।

গুরুত্বপূর্ণ এ বৈঠকে অংশ নিতে রাশিয়া থেকে অ্যালেক্সি লিখাচেভ সোমবার (১ এপ্রিল) ঢাকায় এসে পৌঁছেছেন।

জানা গেছে, বিশেষ বিমানে রাশিয়া থেকে ঢাকায় পৌঁছানোর পর রসাটমের মহাপরিচালক প্রথমেই যান পাবনার রূপপুরে। সেখানে পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণকাজের অগ্রগতি নিয়ে প্রকল্পসংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করেন। এরপর ঢাকায় ফিরেও পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণকাজসংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করেন।

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বশীল এক কর্মকর্তা জানান, রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণকাজের অগ্রগতি নিয়ে নির্দিষ্ট সময় পরপর বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী এবং রাশিয়ার প্রেসিডেন্টকে অবহিত করতে হয়। রুটিন কাজের অংশ হিসেবে রসাটমের মহাপরিচালক বাংলাদেশ সফরে এসেছেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে আজ সকাল ১০টায় বৈঠকে বসেন তিনি। বৈঠকে রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের নির্মাণকাজের অগ্রগতি, সঞ্চালন লাইন, প্রকল্প ব্যয়ের অর্থ প্রদানসহ নানা গুরুত্বপূর্ণ দিক নিয়ে আলোচনা হয়। বিদ্যুৎকেন্দ্রটি যাতে যথাসময়ে উৎপাদনে আসতে পারে, তা নিয়ে করণীয় বিষয় নিয়েও আলোচনা হবে দুই দেশের মধ্যে। একাধিক এজেন্ডার মধ্যে রূপপুরে দ্বিতীয় পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণের বিষয়টিও স্থান পেয়েছে।

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে প্রায় পৌনে এক ঘণ্টার বৈঠক শেষে অ্যালেক্সি লিখাচেভ আজই রাশিয়ার উদ্দেশে বিশেষ বিমানে ঢাকা ত্যাগ করবেন বলে জানা গেছে।

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে রসাটম মহাপরিচালকের সাক্ষাৎ

প্রকাশের সময় : ০২:১৭:০৩ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২ এপ্রিল ২০২৪

রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় পারমাণবিক সংস্থা রসাটমের মহাপরিচালক (ডিজি) অ্যালেক্সি লিখাচেভ আজ সকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেছেন। এ বৈঠক থেকে রূপপুরেই দেশের দ্বিতীয় পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণের বিষয়ে ঘোষণা আসতে পারে।

গুরুত্বপূর্ণ এ বৈঠকে অংশ নিতে রাশিয়া থেকে অ্যালেক্সি লিখাচেভ সোমবার (১ এপ্রিল) ঢাকায় এসে পৌঁছেছেন।

জানা গেছে, বিশেষ বিমানে রাশিয়া থেকে ঢাকায় পৌঁছানোর পর রসাটমের মহাপরিচালক প্রথমেই যান পাবনার রূপপুরে। সেখানে পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণকাজের অগ্রগতি নিয়ে প্রকল্পসংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করেন। এরপর ঢাকায় ফিরেও পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণকাজসংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করেন।

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বশীল এক কর্মকর্তা জানান, রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণকাজের অগ্রগতি নিয়ে নির্দিষ্ট সময় পরপর বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী এবং রাশিয়ার প্রেসিডেন্টকে অবহিত করতে হয়। রুটিন কাজের অংশ হিসেবে রসাটমের মহাপরিচালক বাংলাদেশ সফরে এসেছেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে আজ সকাল ১০টায় বৈঠকে বসেন তিনি। বৈঠকে রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের নির্মাণকাজের অগ্রগতি, সঞ্চালন লাইন, প্রকল্প ব্যয়ের অর্থ প্রদানসহ নানা গুরুত্বপূর্ণ দিক নিয়ে আলোচনা হয়। বিদ্যুৎকেন্দ্রটি যাতে যথাসময়ে উৎপাদনে আসতে পারে, তা নিয়ে করণীয় বিষয় নিয়েও আলোচনা হবে দুই দেশের মধ্যে। একাধিক এজেন্ডার মধ্যে রূপপুরে দ্বিতীয় পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণের বিষয়টিও স্থান পেয়েছে।

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে প্রায় পৌনে এক ঘণ্টার বৈঠক শেষে অ্যালেক্সি লিখাচেভ আজই রাশিয়ার উদ্দেশে বিশেষ বিমানে ঢাকা ত্যাগ করবেন বলে জানা গেছে।