মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১০ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

যোগগুরু রামদেবকে সতর্ক করলো ভারতের সুপ্রিম কোর্ট

  • অনলাইন ডেস্ক
  • প্রকাশের সময় : ০৫:১৫:০৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২ এপ্রিল ২০২৪

ছবি: সংগৃহীত

আয়ুর্বেদিক পণ্যের সংস্থা পতঞ্জলির বিভ্রান্তিকর বিজ্ঞাপন নিয়ে যোগগুরু বাবা রামদেবকে কড়া হুঁশিয়ারি শুনিয়েছেন ভারতের সুপ্রিম কোর্ট। আজ মঙ্গলবার (২ এপ্রিল) সেলিব্রিটি এ যোগগুরুকে কঠিন পদক্ষেপের জন্য তৈরি থাকতে বলেন দেশটির সর্বোচ্চ এ আদালত। এদিন রামদেবের সঙ্গে আদালতে হাজিরা দেন তার সহযোগী আচার্য বালকৃষ্ণও।

এর আগে, ভুল বিজ্ঞাপন সংক্রান্ত মামলায় আদালত অবমাননার নোটিশ পাঠানো হয়েছিল রামদেব এবং আচার্য বালকৃষ্ণকে। কিন্তু কোনও জবাব না আসায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন ভারতের সুপ্রিম কোর্ট। ২ এপ্রিল তাদের দুজনকে হাজিরা দিতেই হবে জানিয়ে কড়া নির্দেশ দেন আদালত। সেই নির্দেশ মেনেই আজ মঙ্গলবার সুপ্রিম কোর্টে হাজিরা দেন তারা।

প্রসঙ্গত, ভুল বিজ্ঞাপন সংক্রান্ত উক্ত মামলায় পতঞ্জলির বিরুদ্ধে ইন্ডিয়ান মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের অভিযোগ ছিল, অ্যালোপ্যাথি চিকিৎসা এবং চিকিৎসকদের অপমান করেছে রামদেবের সংস্থা। এছাড়া কোভিড ১৯-এর ভ্যাকসিন নিয়েও এই সংস্থা ভুল প্রচার করেছে বলে অভিযোগ করা হয়।

ইন্ডিয়ান মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের দাবি, পতঞ্জলির করা দাবিগুলো আদৌ সত্য বলে প্রমাণিত নয় এবং তা ১৯৫৪ সালের ড্রাগস অ্যান্ড আদার ম্যাজিক রেমেডি আইন এবং ২০১৯ সালের উপভোক্তা সুরক্ষা আইনের মতো আইনগুলোর সরাসরি লঙ্ঘন।

বাসের ধাক্কায় চুয়েটের ২ ছাত্র নিহত, সড়ক অবরোধ শিক্ষার্থীদের

যোগগুরু রামদেবকে সতর্ক করলো ভারতের সুপ্রিম কোর্ট

প্রকাশের সময় : ০৫:১৫:০৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২ এপ্রিল ২০২৪

আয়ুর্বেদিক পণ্যের সংস্থা পতঞ্জলির বিভ্রান্তিকর বিজ্ঞাপন নিয়ে যোগগুরু বাবা রামদেবকে কড়া হুঁশিয়ারি শুনিয়েছেন ভারতের সুপ্রিম কোর্ট। আজ মঙ্গলবার (২ এপ্রিল) সেলিব্রিটি এ যোগগুরুকে কঠিন পদক্ষেপের জন্য তৈরি থাকতে বলেন দেশটির সর্বোচ্চ এ আদালত। এদিন রামদেবের সঙ্গে আদালতে হাজিরা দেন তার সহযোগী আচার্য বালকৃষ্ণও।

এর আগে, ভুল বিজ্ঞাপন সংক্রান্ত মামলায় আদালত অবমাননার নোটিশ পাঠানো হয়েছিল রামদেব এবং আচার্য বালকৃষ্ণকে। কিন্তু কোনও জবাব না আসায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন ভারতের সুপ্রিম কোর্ট। ২ এপ্রিল তাদের দুজনকে হাজিরা দিতেই হবে জানিয়ে কড়া নির্দেশ দেন আদালত। সেই নির্দেশ মেনেই আজ মঙ্গলবার সুপ্রিম কোর্টে হাজিরা দেন তারা।

প্রসঙ্গত, ভুল বিজ্ঞাপন সংক্রান্ত উক্ত মামলায় পতঞ্জলির বিরুদ্ধে ইন্ডিয়ান মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের অভিযোগ ছিল, অ্যালোপ্যাথি চিকিৎসা এবং চিকিৎসকদের অপমান করেছে রামদেবের সংস্থা। এছাড়া কোভিড ১৯-এর ভ্যাকসিন নিয়েও এই সংস্থা ভুল প্রচার করেছে বলে অভিযোগ করা হয়।

ইন্ডিয়ান মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের দাবি, পতঞ্জলির করা দাবিগুলো আদৌ সত্য বলে প্রমাণিত নয় এবং তা ১৯৫৪ সালের ড্রাগস অ্যান্ড আদার ম্যাজিক রেমেডি আইন এবং ২০১৯ সালের উপভোক্তা সুরক্ষা আইনের মতো আইনগুলোর সরাসরি লঙ্ঘন।