মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ঈদে আসছে হেদায়েত তুর্কীর অভিনীত ২০ নাটক

হেদায়েত তুর্কী

আসন্ন পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে মুক্তি পাচ্ছে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ডেপুটি রেজিস্ট্রার মো. হেদায়েত উল্লাহ তুর্কী অভিনীত ২০ নাটক। বিভিন্ন টেলিভিশন চ্যানেলে একক এবং ধারাবাহিক এসব নাটক প্রচারিত করবে।
ধারাবাহিক নাটকগুলোর মধ্যে রয়েছে- আজিম খানের পরিচালিত ‘বিয়ে আর হলো না’ ও ‘পলাশ সরকারের তস্কর’। একক নাটকগুলো হলো- সঞ্জীব দাসের ‘নিকৃষ্ট জনক’, ‘ডামি শশুর’, আজিম খানের ‘বিয়ে করলে ভাগ্য বদলায়’, ‘নিঃস্ব বড় ভাই’, ‘নায়িকার জুতা’, ‘আপন ইভানের ভাগিদার মা’, ‘চিটারী বিয়ে’, এস এম আইয়ুব আলী খানের ‘গ্রামের সুন্দরী’, ‘শালার জ্বালা’, ‘সরি মা’, সাইফুল ইসলামের ‘অভাবের সংসার’, সুমন সানির ‘জামাই আদর’, জেসমিন রফিকের ‘কর্পোরেট চোর’, ‘বউ রাখিয়া বিদেশ যাইও না’, হালিম মজুমদার শিমুলের ‘লাভ এন্ট্রি’, জাফর আল মামুনের ‘ফাইসা গেছি’।
এছাড়া আসন্ন পবিত্র ঈদুল ফিতরে তাঁর অভিনীত সরকারি অনুদানের সিনেমা ‘জামদানী’ মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে। তাঁর অভিনীত সিনেমা সৈকত নাসিরের ‘সুলতানপুর’, শাহীন সুমনের ‘মাফিয়া’ মুক্তি পেলেও মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে আরো ৯ টি সিনেমা। অন্যদিকে ঈদের নাটক ছাড়াও বর্তমানে হেয়ায়েত উল্লাহ তুর্কি অভিনীত পরিচালক হাসান জাহাঙ্গীরের ধারাবাহিক ‘ফ্যামেলী ডিসটেন্স’, আদিত্যের ধারাবাহিক ‘জনির হালের হাওয়া’, মঈন খান রুপ্পীর ধারাবাহিক ‘প্রবাস পল্লী’ বিভিন্ন টেলিভিশনে প্রচার হচ্ছে।
হেদায়েত উল্লাহ তুর্কি বলেন, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে চাকরির পাশাপাশি ছুটি বা অবসর সময়ে নাটক সিনেমাতে অভিনয় করি। আমার পেশা চাকুরী হলেও নাটক আমার কাছে নেশার মতো। পেশা হতে আমি আমার সংসার চালানোর জন্য বেতন পেয়ে থাকি কিন্তু নাটকে অভিনয় করার মাধ্যমে আমি আমার অন্তরের সুখ খুঁজে পাই। এক্ষেত্রে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সহযোগিতা এবং উৎসাহ পেয়ে থাকি।
প্রসঙ্গত, হেদায়েত উল্লাহ তুর্কী নিয়মিত নাটকে অভিনয়ের পাশাপাশি নাটক, বিজ্ঞাপন ও ডকুমেন্টারি পরিচালনা এবং নাটক রচনা করে চলেছেন। তিনি তিন শতাধিক একক নাটক এবং ৪৫ টি ধারাবাহিক নাটকে অভিনয় করেছেন।

পুলিশের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন হয় এমন কাজ থেকে বিরত থাকুন- এসপি 

ঈদে আসছে হেদায়েত তুর্কীর অভিনীত ২০ নাটক

প্রকাশের সময় : ০৪:৩৯:০৮ অপরাহ্ন, সোমবার, ৮ এপ্রিল ২০২৪
আসন্ন পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে মুক্তি পাচ্ছে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ডেপুটি রেজিস্ট্রার মো. হেদায়েত উল্লাহ তুর্কী অভিনীত ২০ নাটক। বিভিন্ন টেলিভিশন চ্যানেলে একক এবং ধারাবাহিক এসব নাটক প্রচারিত করবে।
ধারাবাহিক নাটকগুলোর মধ্যে রয়েছে- আজিম খানের পরিচালিত ‘বিয়ে আর হলো না’ ও ‘পলাশ সরকারের তস্কর’। একক নাটকগুলো হলো- সঞ্জীব দাসের ‘নিকৃষ্ট জনক’, ‘ডামি শশুর’, আজিম খানের ‘বিয়ে করলে ভাগ্য বদলায়’, ‘নিঃস্ব বড় ভাই’, ‘নায়িকার জুতা’, ‘আপন ইভানের ভাগিদার মা’, ‘চিটারী বিয়ে’, এস এম আইয়ুব আলী খানের ‘গ্রামের সুন্দরী’, ‘শালার জ্বালা’, ‘সরি মা’, সাইফুল ইসলামের ‘অভাবের সংসার’, সুমন সানির ‘জামাই আদর’, জেসমিন রফিকের ‘কর্পোরেট চোর’, ‘বউ রাখিয়া বিদেশ যাইও না’, হালিম মজুমদার শিমুলের ‘লাভ এন্ট্রি’, জাফর আল মামুনের ‘ফাইসা গেছি’।
এছাড়া আসন্ন পবিত্র ঈদুল ফিতরে তাঁর অভিনীত সরকারি অনুদানের সিনেমা ‘জামদানী’ মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে। তাঁর অভিনীত সিনেমা সৈকত নাসিরের ‘সুলতানপুর’, শাহীন সুমনের ‘মাফিয়া’ মুক্তি পেলেও মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে আরো ৯ টি সিনেমা। অন্যদিকে ঈদের নাটক ছাড়াও বর্তমানে হেয়ায়েত উল্লাহ তুর্কি অভিনীত পরিচালক হাসান জাহাঙ্গীরের ধারাবাহিক ‘ফ্যামেলী ডিসটেন্স’, আদিত্যের ধারাবাহিক ‘জনির হালের হাওয়া’, মঈন খান রুপ্পীর ধারাবাহিক ‘প্রবাস পল্লী’ বিভিন্ন টেলিভিশনে প্রচার হচ্ছে।
হেদায়েত উল্লাহ তুর্কি বলেন, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে চাকরির পাশাপাশি ছুটি বা অবসর সময়ে নাটক সিনেমাতে অভিনয় করি। আমার পেশা চাকুরী হলেও নাটক আমার কাছে নেশার মতো। পেশা হতে আমি আমার সংসার চালানোর জন্য বেতন পেয়ে থাকি কিন্তু নাটকে অভিনয় করার মাধ্যমে আমি আমার অন্তরের সুখ খুঁজে পাই। এক্ষেত্রে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সহযোগিতা এবং উৎসাহ পেয়ে থাকি।
প্রসঙ্গত, হেদায়েত উল্লাহ তুর্কী নিয়মিত নাটকে অভিনয়ের পাশাপাশি নাটক, বিজ্ঞাপন ও ডকুমেন্টারি পরিচালনা এবং নাটক রচনা করে চলেছেন। তিনি তিন শতাধিক একক নাটক এবং ৪৫ টি ধারাবাহিক নাটকে অভিনয় করেছেন।