মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আইপিএল শেষে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মধ্যেই শুরু হচ্ছে ‘বিপিএল

আইপিএল শেষ হলেই ভারতের মাটিতে শুরু হওয়ার কথা ছিল আরও একটি ফ্র্যাঞ্চাইজি টুর্নামেন্ট। পুরুষদের পাশাপাশি নারীদের আটটি দল অংশ নেবে নতুন এই টুর্নামেন্টে। মূল আয়োজক হিসেবে ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন অফ বেঙ্গল (সিএবি) দায়িত্ব পালন করবে। এতদিন জানা গিয়েছিল টুর্নামেন্টটি আয়োজনের জন্য অনুমতি দিয়েছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই)। তবে নির্ধারিত কোনো তারিখ জানা ছিল না। অবশেষে টুর্নামেন্টটি মাঠে গড়ানোর তারিখ আনুষ্ঠানিকভাবে জানিয়েছে ‘সিএবি’।

নতুন ফ্র্যাঞ্চাইজি টুর্নামেন্টের নাম দেয়া হয়েছে বেঙ্গল প্রো টি-টোয়েন্টি লিগ (বিপিএল)। ভারতীয় গণমাধ্যম  জানিয়েছে, গত মঙ্গলবার (৯ এপ্রিল) টুর্নামেন্টটি মাঠে গড়ানোর তারিখ ও লোগো উন্মোচন করেন সিএবির প্রেসিডেন্ট স্নেহাশিস গাঙ্গুলি। তিনি জানিয়েছেন, চলতি বছরের জুনের ১২ তারিখ থেকে মাঠে গড়াবে টুর্নামেন্টটি।

স্নেহাশিস গাঙ্গুলি বলেন, বেশির ভাগ ফ্র্যাঞ্চাইজির সঙ্গেই পাকা কথা হয়ে গিয়েছে। এবার এক দু’টি ফ্র্যাঞ্চাইজি আছে যাদের সঙ্গে পাকা কথা শেষ হয়নি। আশা করছি, আগামী ১৫ দিনের মধ্যেই সরকারিভাবে ঘোষণা করে দেয়া হবে আটটি দলের নাম।

তিন কোটি টাকা দিয়ে প্রতিটি ফ্র্যাঞ্চাইজি দল কিনবে। ক্রিকেটারদের পারিশ্রমিকও দেবে দলগুলোই। ড্রাফ্টিংয়ের সাহায্য ক্রিকেটার নেবে আটটি দল। স্নেহাশিস বলেন, আইপিএলের পরে দেশে এত বড় প্রতিযোগিতা হয়নি।

পুরনো ঐতিহ্যের সঙ্গে আধুনিকতা এবং সৃজনশীলতা মিশেছে এই লোগোতে। ক্রিকেটার এবং ভক্তদের খেলার প্রতি ভালবাসার কথাও মাথায় রাখা হয়েছে। লোগো নিয়ে সিএবি প্রেসিডেন্ট বলেন, বেঙ্গল প্রো টি২০ লিগের যে মর্মার্থ, তা এই লোগোতে ফুটে উঠেছে। ক্রিকেটসমাজের কাছে আমরা দায়বদ্ধ।

প্রসঙ্গত, নতুন এই টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণকারী দলগুলোর নাম নির্ধারণ করা হবে দেশটির জেলা শহরের নামে। পুরুষদের প্রতিটি দলে থাকবে ১৭ জন করে ক্রিকেটার আর মহিলাদের দলে ১৬ জন। মোট ২৬৪ জন ক্রিকেটার খেলার সুযোগ পাবেন বিপিএলে। প্রতিটি দলকে রাখা হবে বিলাসবহুল হোটেলে।

আইপিএল শেষে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মধ্যেই শুরু হচ্ছে ‘বিপিএল

প্রকাশের সময় : ০৬:২৩:২০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১২ এপ্রিল ২০২৪

আইপিএল শেষ হলেই ভারতের মাটিতে শুরু হওয়ার কথা ছিল আরও একটি ফ্র্যাঞ্চাইজি টুর্নামেন্ট। পুরুষদের পাশাপাশি নারীদের আটটি দল অংশ নেবে নতুন এই টুর্নামেন্টে। মূল আয়োজক হিসেবে ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন অফ বেঙ্গল (সিএবি) দায়িত্ব পালন করবে। এতদিন জানা গিয়েছিল টুর্নামেন্টটি আয়োজনের জন্য অনুমতি দিয়েছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই)। তবে নির্ধারিত কোনো তারিখ জানা ছিল না। অবশেষে টুর্নামেন্টটি মাঠে গড়ানোর তারিখ আনুষ্ঠানিকভাবে জানিয়েছে ‘সিএবি’।

নতুন ফ্র্যাঞ্চাইজি টুর্নামেন্টের নাম দেয়া হয়েছে বেঙ্গল প্রো টি-টোয়েন্টি লিগ (বিপিএল)। ভারতীয় গণমাধ্যম  জানিয়েছে, গত মঙ্গলবার (৯ এপ্রিল) টুর্নামেন্টটি মাঠে গড়ানোর তারিখ ও লোগো উন্মোচন করেন সিএবির প্রেসিডেন্ট স্নেহাশিস গাঙ্গুলি। তিনি জানিয়েছেন, চলতি বছরের জুনের ১২ তারিখ থেকে মাঠে গড়াবে টুর্নামেন্টটি।

স্নেহাশিস গাঙ্গুলি বলেন, বেশির ভাগ ফ্র্যাঞ্চাইজির সঙ্গেই পাকা কথা হয়ে গিয়েছে। এবার এক দু’টি ফ্র্যাঞ্চাইজি আছে যাদের সঙ্গে পাকা কথা শেষ হয়নি। আশা করছি, আগামী ১৫ দিনের মধ্যেই সরকারিভাবে ঘোষণা করে দেয়া হবে আটটি দলের নাম।

তিন কোটি টাকা দিয়ে প্রতিটি ফ্র্যাঞ্চাইজি দল কিনবে। ক্রিকেটারদের পারিশ্রমিকও দেবে দলগুলোই। ড্রাফ্টিংয়ের সাহায্য ক্রিকেটার নেবে আটটি দল। স্নেহাশিস বলেন, আইপিএলের পরে দেশে এত বড় প্রতিযোগিতা হয়নি।

পুরনো ঐতিহ্যের সঙ্গে আধুনিকতা এবং সৃজনশীলতা মিশেছে এই লোগোতে। ক্রিকেটার এবং ভক্তদের খেলার প্রতি ভালবাসার কথাও মাথায় রাখা হয়েছে। লোগো নিয়ে সিএবি প্রেসিডেন্ট বলেন, বেঙ্গল প্রো টি২০ লিগের যে মর্মার্থ, তা এই লোগোতে ফুটে উঠেছে। ক্রিকেটসমাজের কাছে আমরা দায়বদ্ধ।

প্রসঙ্গত, নতুন এই টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণকারী দলগুলোর নাম নির্ধারণ করা হবে দেশটির জেলা শহরের নামে। পুরুষদের প্রতিটি দলে থাকবে ১৭ জন করে ক্রিকেটার আর মহিলাদের দলে ১৬ জন। মোট ২৬৪ জন ক্রিকেটার খেলার সুযোগ পাবেন বিপিএলে। প্রতিটি দলকে রাখা হবে বিলাসবহুল হোটেলে।