মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

যুক্তরাজ্য এবার ভিসা ব্যবস্থাপনায় বড় পরিবর্তন আনল

অভিবাসীরা পরিবারের সদস্যদের যুক্তরাজ্যে নিয়ে আসতে এতদিন যেসব শর্ত পূরণ করতে হতো, তা আরও কঠোর করেছে দেশটির সরকার। ব্রিটিশ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার (১১ এপ্রিল) এক বিবৃতিতে এসব তথ্য প্রকাশ করেছে।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, দীর্ঘদিন ধরে যুক্তরাজ্যে বসবাস করছেন এবং নাগরিকত্ব অর্জন করেছেন— এমন অভিবাসীদের মধ্যে যারা নিজেদের পরিবারের সদস্যদের এখানে আনার জন্য স্পনসর হতে চান, তাদের বার্ষিক আয় কমপক্ষে ২৯ হাজার পাউন্ড (বাংলাদেশি মুদ্রায় ৩৯ লাখ ৮৪ হাজার টাকা) হতে হবে। আগে এই অর্থের পরিমাণ ছিল ১৮ হাজার ৬০০ পাউন্ড (বাংলাদেশি মুদ্রায় ২৫ লাখ ৫৫ হাজার টাকা)। শতকরা হিসেবে অর্থের পরিমাণ বাড়ানো হয়েছে ৫৫ শতাংশ। বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, আগামী বছর ২০২৫ সালে এই অঙ্ক ৩৮ হাজার ৭০০ পাউন্ডে (বাংলাদেশি মুদ্রায় ৫৩ লাখ ১৬ হাজার ৭১২ টাকা) উন্নীত করা হবে।

ব্রিটিশ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জেমস ক্লিভারলি দেশটির অভিবাসন ব্যবস্থায় পরিবর্তন আনার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। সেই প্রতিশ্রুতির অংশ হিসেবে এ পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। এর আগে গত বছর শিক্ষার্থীদের ওপর ভিসায় কড়াকড়ি আরোপ করে ব্রিটিশ সরকার।

প্রসঙ্গত, যুক্তরাজ্যে কয়েক বছর ধরে এশিয়া ও আফ্রিকার বিভিন্ন দেশ থেকে ‘বহুল সংখ্যক’ অভিবাসনপ্রত্যাশী ঢুকেছে। অনেকেই শিক্ষার্থী ভিসায় যুক্তরাজ্যে সেখানে যান এবং এক পর্যায়ে নাগরিকত্ব অর্জন করেন এবং সেই সঙ্গে এবার নিজেদের পরিবারের সদস্যদের নিয়ে আসতে তৎপর হয়ে ওঠেন।

যুক্তরাজ্য এবার ভিসা ব্যবস্থাপনায় বড় পরিবর্তন আনল

প্রকাশের সময় : ০৭:২৬:১৪ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১২ এপ্রিল ২০২৪

অভিবাসীরা পরিবারের সদস্যদের যুক্তরাজ্যে নিয়ে আসতে এতদিন যেসব শর্ত পূরণ করতে হতো, তা আরও কঠোর করেছে দেশটির সরকার। ব্রিটিশ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার (১১ এপ্রিল) এক বিবৃতিতে এসব তথ্য প্রকাশ করেছে।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, দীর্ঘদিন ধরে যুক্তরাজ্যে বসবাস করছেন এবং নাগরিকত্ব অর্জন করেছেন— এমন অভিবাসীদের মধ্যে যারা নিজেদের পরিবারের সদস্যদের এখানে আনার জন্য স্পনসর হতে চান, তাদের বার্ষিক আয় কমপক্ষে ২৯ হাজার পাউন্ড (বাংলাদেশি মুদ্রায় ৩৯ লাখ ৮৪ হাজার টাকা) হতে হবে। আগে এই অর্থের পরিমাণ ছিল ১৮ হাজার ৬০০ পাউন্ড (বাংলাদেশি মুদ্রায় ২৫ লাখ ৫৫ হাজার টাকা)। শতকরা হিসেবে অর্থের পরিমাণ বাড়ানো হয়েছে ৫৫ শতাংশ। বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, আগামী বছর ২০২৫ সালে এই অঙ্ক ৩৮ হাজার ৭০০ পাউন্ডে (বাংলাদেশি মুদ্রায় ৫৩ লাখ ১৬ হাজার ৭১২ টাকা) উন্নীত করা হবে।

ব্রিটিশ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জেমস ক্লিভারলি দেশটির অভিবাসন ব্যবস্থায় পরিবর্তন আনার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। সেই প্রতিশ্রুতির অংশ হিসেবে এ পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। এর আগে গত বছর শিক্ষার্থীদের ওপর ভিসায় কড়াকড়ি আরোপ করে ব্রিটিশ সরকার।

প্রসঙ্গত, যুক্তরাজ্যে কয়েক বছর ধরে এশিয়া ও আফ্রিকার বিভিন্ন দেশ থেকে ‘বহুল সংখ্যক’ অভিবাসনপ্রত্যাশী ঢুকেছে। অনেকেই শিক্ষার্থী ভিসায় যুক্তরাজ্যে সেখানে যান এবং এক পর্যায়ে নাগরিকত্ব অর্জন করেন এবং সেই সঙ্গে এবার নিজেদের পরিবারের সদস্যদের নিয়ে আসতে তৎপর হয়ে ওঠেন।