মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ট্রেনের ইঞ্জিনের হুকে ঝুলে থাকা মৃত সেই নারীর পরিচয় এখনো মেলেনি

পঞ্চগড় এক্সপ্রেস ট্রেনের ইঞ্জিনের সামনে হুকে ঝুলে ছিল মাঝ বয়েসী অজ্ঞাত এক নারী...

দিনাজপুরের হিলি রেলস্টেশনে পঞ্চগড় থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী পঞ্চগড় এক্সপ্রেস ট্রেনের ইঞ্জিনের সামনে হুকে ঝুলে ছিল মাঝ বয়েসী অজ্ঞাত এক নারীর মরদেহ। উদ্ধারের ২৪ ঘন্টা পেরিয়ে গেলেও এখন পর্যন্ত ওই নারীর পরিচয় জানাযায়নি বলে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন হিলি রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ রফিকুল ইসলাম।

গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেল ৪ টা ২০ মিনিটে ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা চিলাহাটিগামী নীলসাগর সাথে ক্রসিংয়ের জন্য পঞ্চগড় থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী পঞ্চগড় এক্সপ্রেস ট্রেন হিলি রেলস্টেশনে এসে দাঁড়ায়। এসময় স্থানীয়রা ওই ট্রেনের ইঞ্জিনের সামনের হুকে মাঝবয়সী এক নারীর মরদেহ ঝুলুন্ত অবস্থায়  দেখতে পায়। ওই নারীর দুটি পায়ের হাঁটুর নিচের অংশ বি”িছন হয়ে গেছে। পরে হিলি রেলওয়ে পুলিশ এসে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। কি ভাবে ট্রেনের ইঞ্জিনের সামনের হুকে ওই নারীর মরদেহ আসলো সেটা কেউ বলতে পারছেনা।

হিলি রেলওয়ের স্টেশন মাস্টার আবু সাঈদ জানান,নীলসাগর এক্সপ্রেস ট্রেনটি হিলি স্টেশন থেকে বিকেল ৪ টা ২৯ মিনিটে চিলাহাটির উদ্যেশে ছেড়ে যায় এবং ৪ টা ৪৫ মিনিটে ট্রেনের ইঞ্জিন থেকে লাশটি উদ্ধার করার পর ঢাকার উদ্যেশে ছেড়ে যায় পঞ্চগড় এক্সপ্রেস ট্রেন। ট্রেনটি পার্বতীপুরে যাত্রা বিরতির পর হিলি রেলস্টেশনে এসে দাঁড়ায় ক্রসিংয়ের জন্য।

হিলি রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ রফিকুল ইসলাম জানান,নিহত ওই নারীর নাম পরিচয় জানাযায়নি। ইঞ্জিনের সামনে কি ভাবে লাশ এলো। এটি হত্যা নাকি দুর্ঘটনা তা তদন্ত সাপেক্ষে বলা যাবে। লাশ আজ সকালে দিনাজপুর এম এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ওই নারীর পরিচয় শনাক্তর জন্য চেষ্ঠা চলছে। পরিচয় পাওয়া গেলে আইনি প্রক্রিয়া শেষে মরদেহ হস্তান্তর করা হবে।

ট্রেনের ইঞ্জিনের হুকে ঝুলে থাকা মৃত সেই নারীর পরিচয় এখনো মেলেনি

প্রকাশের সময় : ০৬:০০:২৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪

দিনাজপুরের হিলি রেলস্টেশনে পঞ্চগড় থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী পঞ্চগড় এক্সপ্রেস ট্রেনের ইঞ্জিনের সামনে হুকে ঝুলে ছিল মাঝ বয়েসী অজ্ঞাত এক নারীর মরদেহ। উদ্ধারের ২৪ ঘন্টা পেরিয়ে গেলেও এখন পর্যন্ত ওই নারীর পরিচয় জানাযায়নি বলে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন হিলি রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ রফিকুল ইসলাম।

গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেল ৪ টা ২০ মিনিটে ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা চিলাহাটিগামী নীলসাগর সাথে ক্রসিংয়ের জন্য পঞ্চগড় থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী পঞ্চগড় এক্সপ্রেস ট্রেন হিলি রেলস্টেশনে এসে দাঁড়ায়। এসময় স্থানীয়রা ওই ট্রেনের ইঞ্জিনের সামনের হুকে মাঝবয়সী এক নারীর মরদেহ ঝুলুন্ত অবস্থায়  দেখতে পায়। ওই নারীর দুটি পায়ের হাঁটুর নিচের অংশ বি”িছন হয়ে গেছে। পরে হিলি রেলওয়ে পুলিশ এসে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। কি ভাবে ট্রেনের ইঞ্জিনের সামনের হুকে ওই নারীর মরদেহ আসলো সেটা কেউ বলতে পারছেনা।

হিলি রেলওয়ের স্টেশন মাস্টার আবু সাঈদ জানান,নীলসাগর এক্সপ্রেস ট্রেনটি হিলি স্টেশন থেকে বিকেল ৪ টা ২৯ মিনিটে চিলাহাটির উদ্যেশে ছেড়ে যায় এবং ৪ টা ৪৫ মিনিটে ট্রেনের ইঞ্জিন থেকে লাশটি উদ্ধার করার পর ঢাকার উদ্যেশে ছেড়ে যায় পঞ্চগড় এক্সপ্রেস ট্রেন। ট্রেনটি পার্বতীপুরে যাত্রা বিরতির পর হিলি রেলস্টেশনে এসে দাঁড়ায় ক্রসিংয়ের জন্য।

হিলি রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ রফিকুল ইসলাম জানান,নিহত ওই নারীর নাম পরিচয় জানাযায়নি। ইঞ্জিনের সামনে কি ভাবে লাশ এলো। এটি হত্যা নাকি দুর্ঘটনা তা তদন্ত সাপেক্ষে বলা যাবে। লাশ আজ সকালে দিনাজপুর এম এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ওই নারীর পরিচয় শনাক্তর জন্য চেষ্ঠা চলছে। পরিচয় পাওয়া গেলে আইনি প্রক্রিয়া শেষে মরদেহ হস্তান্তর করা হবে।