বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

লু নয়, জনগণের শক্তিতেই আন্দোলন চালিয়ে যাব: মির্জা ফখরুল

ফাইল ছবি

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়াবিষয়ক সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডোনাল্ড লুর সফরের ওপর নির্ভর করছে না বিএনপির আন্দোলন। বাংলাদেশের মানুষ গণতান্ত্রিক অধিকার ফিরিয়ে আনতে বিএনপিকে কারো ওপর নির্ভর করতে হবে না। আগেও জনগণ নিজের শক্তিতে পায়ের ওপর ভর করে আন্দোলন করেছে, এখনো করবে। জনগণের শক্তিতেই আমরা আন্দোলন চালিয়ে যাব।

মঙ্গলবার (১৪ মে) সন্ধ্যায় রাজধানীর গুলশানে গণঅধিকার পরিষদ ও গণতান্ত্রিক বাম ঐক্যের সঙ্গে লিয়াজোঁ কমিটির বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে এসব কথা বলেন তিনি। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, গণঅধিকার পরিষদের সভাপতি নুরুল হক নুরসহ অনেকে।

দেশের গণতন্ত্র ও নির্বাচন ব্যবস্থা ধ্বংস করে দেয়া হয়েছে দাবি করে মির্জা ফখরুল বলেন, এই সরকার বিনা ম্যান্ডেটে গায়ের জোরে ক্ষমতা দখল করে আছে। তাদের বিরুদ্ধে বিরোধী দলগুলো দীর্ঘকাল ধরে সংগ্রাম ও লড়াই করে আসছে। এতে রাজনৈতিক এবং অর্থনৈতিক সংকট সৃষ্টি হয়েছে।

তরুণ এবং ছাত্রসমাজকে আন্দোলনে আহ্বান জানিয়ে বলেন, যেকোনো পরিবর্তনের জন্য সবচেয়ে তরুণ এবং ছাত্রসমাজ বড় ভূমিকা পালন করে। যারা গণঅধিকার পরিষদের নেতৃত্ব দিচ্ছেন, তারা ছাত্র রাজনীতি থেকে উঠে এসেছেন। বিভিন্ন আন্দোলনে তাদের ভূমিকা অত্যন্ত জোরাল ছিল। আগামী দিনের গণতান্ত্রিক আন্দোলনে তাদের ভূমিকা অক্ষুণ্ণ রাখবেন বলে আমি আশাবাদী। জনগণকে সংঘবদ্ধ করার ক্ষেত্রেও তারা ইতিবাচক ভূমিকা রাখবেন।

লু নয়, জনগণের শক্তিতেই আন্দোলন চালিয়ে যাব: মির্জা ফখরুল

প্রকাশের সময় : ০৯:৫৮:৪৮ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৫ মে ২০২৪

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়াবিষয়ক সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডোনাল্ড লুর সফরের ওপর নির্ভর করছে না বিএনপির আন্দোলন। বাংলাদেশের মানুষ গণতান্ত্রিক অধিকার ফিরিয়ে আনতে বিএনপিকে কারো ওপর নির্ভর করতে হবে না। আগেও জনগণ নিজের শক্তিতে পায়ের ওপর ভর করে আন্দোলন করেছে, এখনো করবে। জনগণের শক্তিতেই আমরা আন্দোলন চালিয়ে যাব।

মঙ্গলবার (১৪ মে) সন্ধ্যায় রাজধানীর গুলশানে গণঅধিকার পরিষদ ও গণতান্ত্রিক বাম ঐক্যের সঙ্গে লিয়াজোঁ কমিটির বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে এসব কথা বলেন তিনি। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, গণঅধিকার পরিষদের সভাপতি নুরুল হক নুরসহ অনেকে।

দেশের গণতন্ত্র ও নির্বাচন ব্যবস্থা ধ্বংস করে দেয়া হয়েছে দাবি করে মির্জা ফখরুল বলেন, এই সরকার বিনা ম্যান্ডেটে গায়ের জোরে ক্ষমতা দখল করে আছে। তাদের বিরুদ্ধে বিরোধী দলগুলো দীর্ঘকাল ধরে সংগ্রাম ও লড়াই করে আসছে। এতে রাজনৈতিক এবং অর্থনৈতিক সংকট সৃষ্টি হয়েছে।

তরুণ এবং ছাত্রসমাজকে আন্দোলনে আহ্বান জানিয়ে বলেন, যেকোনো পরিবর্তনের জন্য সবচেয়ে তরুণ এবং ছাত্রসমাজ বড় ভূমিকা পালন করে। যারা গণঅধিকার পরিষদের নেতৃত্ব দিচ্ছেন, তারা ছাত্র রাজনীতি থেকে উঠে এসেছেন। বিভিন্ন আন্দোলনে তাদের ভূমিকা অত্যন্ত জোরাল ছিল। আগামী দিনের গণতান্ত্রিক আন্দোলনে তাদের ভূমিকা অক্ষুণ্ণ রাখবেন বলে আমি আশাবাদী। জনগণকে সংঘবদ্ধ করার ক্ষেত্রেও তারা ইতিবাচক ভূমিকা রাখবেন।