সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সামনের নির্বাচনগুলো আরো স্বচ্ছ হবে: ইসি হাবিব

যশোরে নির্বাচন কমিশনার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব:) মো: আহসান হাবীব খান বলেছেন, আমি প্রার্থীদের বলেছি মানুষ হিসেবে যে আমরা শ্রেষ্ঠ সে শ্রেষ্ঠত্বতা প্রমাণ করতে হবে। জনগণের সেবক হতে হবে। কারোর উপর ভর না দিয়ে জনগণের ভালোবাসার উপর ভর করতে হবে। প্রার্থীরা আমাদের কথায় সম্মত। তাদেরকে আমরা আশ্বস্থ করতে পেরেছি। সামনের নির্বাচনগুলো আগের থেকে আরো স্বচ্ছ ও ভালো হবে। আইন শৃঙ্খলা বাহিনী আইনে প্রয়োগে কঠোর হবে। কোন ছাড় হবে না।

আজ দুপুরে যশোর শিল্পকলা একাডেমিতে যশোর, নড়াইল ও মাগুরার প্রার্থী, নির্বাচনী কর্মকর্তা ও আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের সাথে বৈঠক শেষে এক ব্রিফিংয়ে এ কথা বলেন তিনি।

নির্বাচন কমিশনার প্রথম ধাপের উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ভোটার উপস্থিতি নিয়ে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন। তিনি বলেছেন, এই সময়ে ৩৬ শতাংশ ভোট কম না। এটা গ্রহণযোগ্য। মূলত তিনটি কারণে ভোটার উপস্থিতি কম ছিলো। এর মধ্যে একটি বৃহৎ রাজনৈতিক দলের অনুপস্থিতি, দ্বিতীয় এখন ধান কাটার মৌসুম, তাছাড়া ভোটের আগের রাতে ব্যাপক বৃষ্টিপাত হয়েছে। আগামীতে ভোটার উপস্থিতি বাড়বে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

তিনি আরো বলেন, উপজেলা ওয়ারি ভোটার উপস্থিতি পরিসংখ্যান প্রকাশ করবে নির্বাচন কমিশন। পাশাপাশি আসন্ন দ্বিতীয় ও তৃতীয় ধাপের নির্বাচনে কেন্দ্রে ভোটার আনতে নির্বাচন কমিশন প্রচারণা চালাবে। প্রার্থীদেরও প্রচারণা চালাতে হবে। পাশাপাশি আইন শৃঙ্খলা বাহিনী ভোটারদের নির্বিঘ্নে কেন্দ্রে আসতে সকল ব্যবস্থা করবে।

তিনি আরো বলেন, আমরা আস্তে আস্তে ভালো করছি। আগামীতে আমাদের নির্বাচন বিশ্ববাসীর জন্য রোল মডেল হবে।

আজ বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় যশোর শিল্পকলা একাডেমিতে যশোর, নড়াইল ও মাগুরার প্রার্থী, নির্বাচনী কর্মকর্তা ও আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের সাথে বৈঠক বসেন নির্বাচন কমিশনার। দুপুর আড়াইটায় বৈঠক শেষ হয়।

সামনের নির্বাচনগুলো আরো স্বচ্ছ হবে: ইসি হাবিব

প্রকাশের সময় : ০৪:০৪:০৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৬ মে ২০২৪

যশোরে নির্বাচন কমিশনার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব:) মো: আহসান হাবীব খান বলেছেন, আমি প্রার্থীদের বলেছি মানুষ হিসেবে যে আমরা শ্রেষ্ঠ সে শ্রেষ্ঠত্বতা প্রমাণ করতে হবে। জনগণের সেবক হতে হবে। কারোর উপর ভর না দিয়ে জনগণের ভালোবাসার উপর ভর করতে হবে। প্রার্থীরা আমাদের কথায় সম্মত। তাদেরকে আমরা আশ্বস্থ করতে পেরেছি। সামনের নির্বাচনগুলো আগের থেকে আরো স্বচ্ছ ও ভালো হবে। আইন শৃঙ্খলা বাহিনী আইনে প্রয়োগে কঠোর হবে। কোন ছাড় হবে না।

আজ দুপুরে যশোর শিল্পকলা একাডেমিতে যশোর, নড়াইল ও মাগুরার প্রার্থী, নির্বাচনী কর্মকর্তা ও আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের সাথে বৈঠক শেষে এক ব্রিফিংয়ে এ কথা বলেন তিনি।

নির্বাচন কমিশনার প্রথম ধাপের উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ভোটার উপস্থিতি নিয়ে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন। তিনি বলেছেন, এই সময়ে ৩৬ শতাংশ ভোট কম না। এটা গ্রহণযোগ্য। মূলত তিনটি কারণে ভোটার উপস্থিতি কম ছিলো। এর মধ্যে একটি বৃহৎ রাজনৈতিক দলের অনুপস্থিতি, দ্বিতীয় এখন ধান কাটার মৌসুম, তাছাড়া ভোটের আগের রাতে ব্যাপক বৃষ্টিপাত হয়েছে। আগামীতে ভোটার উপস্থিতি বাড়বে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

তিনি আরো বলেন, উপজেলা ওয়ারি ভোটার উপস্থিতি পরিসংখ্যান প্রকাশ করবে নির্বাচন কমিশন। পাশাপাশি আসন্ন দ্বিতীয় ও তৃতীয় ধাপের নির্বাচনে কেন্দ্রে ভোটার আনতে নির্বাচন কমিশন প্রচারণা চালাবে। প্রার্থীদেরও প্রচারণা চালাতে হবে। পাশাপাশি আইন শৃঙ্খলা বাহিনী ভোটারদের নির্বিঘ্নে কেন্দ্রে আসতে সকল ব্যবস্থা করবে।

তিনি আরো বলেন, আমরা আস্তে আস্তে ভালো করছি। আগামীতে আমাদের নির্বাচন বিশ্ববাসীর জন্য রোল মডেল হবে।

আজ বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় যশোর শিল্পকলা একাডেমিতে যশোর, নড়াইল ও মাগুরার প্রার্থী, নির্বাচনী কর্মকর্তা ও আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের সাথে বৈঠক বসেন নির্বাচন কমিশনার। দুপুর আড়াইটায় বৈঠক শেষ হয়।