সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

যশোর জেলা পরিবহনসংস্থা শ্রমিক ইউনিয়নের নির্বাচন সম্পন্ন

যশোরে জেলা পরিবহন সংস্থা শ্রমিক ইউনিয়নের ত্রি-বার্ষিক নির্বাচনের ভোট গ্রহন শেষ হয়েছে উৎসবমূখর পরিবেশে।শুক্রবার সকাল ৮টা থেকে শুরু হয়ে বিকেল ৫টা পর্যন্ত যশোর সরকারি সিটি কলেজে শান্তিপূর্ণভাবে ভোট গ্রহন শেষ হয়। নির্বাচনে আট হাজার ২শ’৩৯ জন ভোটারের মধ্যে ৭ হাজার ১শ’ ১৭ জন তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। কলেজের ২০০টি বুথে এ ভোট গ্রহন চলে। ২৪ টি বাক্সে ব্যালট ফেলা হয়। ভোটগ্রহন শেষে ব্যালট ভর্তি ড্রামগুলো পরিবহন সংস্থা শ্রমিক ইউনিয়নের কার্যালয়ের একটি রুমে তালাবদ্ধ করে তা সিলগালা করা হয়। শনিবার সকাল ৮টা থেকে ভোট গণনা শুরু হবে। ধারণা করা হচ্ছে শনিবার সন্ধ্যা নাগাদ ফলাফল প্রকাশ করা সম্ভব হবে।
এদিন নির্বাচনকে কেন্দ্র করে শুক্রবার ভোর থেকেই সিটি কলেজ ক্যাম্পাসে শ্রমিক নেতাকর্মীরা জড়ো হতে থাকে। সকাল হলেই লোকে লোকারণ্য হয়ে যায় সিটি কলেজ এলাকাসহ আশপাশের এলাকা। বসানো হয় প্রার্থীদের নির্বাচনী ট্রেন্ট।
নির্বাচনা পরিচালনা কমিটি জানায়, এবারের নির্বাচনে ইউনিয়নের নয়টি পোর্ট ফোলিও’র ১৭টি পদে ৬১ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বীতা করেছেন।
তারা হলেন, সভাপতি পদে সেলিম রেজা মিঠু (ডালরেন্স), মামুনুর রশিদ বাচ্চু (মিনার) ও শাহেদ হোসেন জনি (হেলিকপ্টার), সহসভাপতি পদে আসাদুজ্জামান সুমন (গরুর গাড়ি), আবু হাসান (আনারস), মারুফ হোসেন (বটগাছ), রতন অধিকারী (মই), রবিউল হোসেন লবিন (তবলা), ষষ্টি দত্ত (তরবারি) ও হাদিউজ্জামান (চরকা), সাধারণ সম্পাদক পদে ইমান আলী (গোলাপ ফুল), আব্দুল ওয়াদুদ (বাইসাইকেল) ও মোর্ত্তূজা হোসেন (ফুটবল), যুগ্ম সম্পাদক পদে মিজানুর রহমান (একতারা) ও রবিউল ইসলাম মিন্টু গাজী (মোরগ), সহসাধারণ সম্পাদক পদে কাবিবুর রহমান টুটুল (বালতি), কামরুল ইসলাম (হাতুড়ি), মুজিবর রহমান সরদার (হাঁস), রফিকুল হাসান ডাবলু (ময়ূর), সেলিম রেজা (মোমবাতি) ও হারুন অর রশিদ ফুলু (মাইক), সাংগঠনিক সম্পাদক পদে টিপু সুলতান (কোদাল) ও রিয়াজ উদ্দিন (কলা), প্রচার সম্পাদক পদে জাহাঙ্গীর হোসেন (কুলা), শেখ নান্টু (তীর ধনুক), আব্দুর রাজ্জাক (উট), আব্দুর রহমান মিন্টু (ঠেলা গাড়ি) ও আব্দুর রহিম খাঁ বাবু (খেজুর গাছ),কোষাধ্যক্ষ পদে কামাল হোসেন (হাতি), নজরুল ইসলাম (টেবিল ফ্যান) ও শহিদুল ইসলাম (স্লাাইসরেন্স), কার্যকরী সদস্য পদে ইমরান (কুঁড়েঘর), ইসরাফিল (হাতপাখা), এনায়েত হোসেন (দোয়েল পাখি), এমদাদুল হক (চশমা), এরশাদ আলী (তারা), আব্দুল আজিজ (টেলিভিশন), আনোয়ার বিশ্বাস (পানির বোতল), আবু মুসা (কলস), আলী হুসাইন (বাস), আসিফ খান (বাঘ), আসাদুজ্জামান (দোয়াত-কলম), আব্দুল করিম (কলম), আবু কাশেম (গাভী), শেখ চঞ্চল (ঘোড়া), জাকির হোসেন (গামছা), জাহাঙ্গীর হোসেন (চিংড়িমাছ), জাহাঙ্গীর হোসেন (প্রজাপতি), তরিকুল ইসলাম (ছাতা), মোহাম্মদ আলী (কাস্তে), মিজানুর রহমান (ঘুড়ি), মনিরুজ্জামান মনি (মোটরসাইকেল), মনিরুল ইসলাম (টায়ার), খন্দকার মাসুদুজ্জামান (দেয়াল-ঘড়ি), আব্দুর রউফ (পাঞ্জা), শেখ রাজু (রুই মাছ), রবিউল ইসলাম (আম), শিমুল বিশ্বাস (রিকশা), শহিদুজ্জামান সহিদ (হরিণ), হাফিজুর রহমান (ডাব) মার্কা।
নির্বাচন পরিচালনা কমিটির চেয়ারম্যান জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট আবু মোর্ত্তজা ছোট জানান, ভোট গণনার পর ব্যালট বাক্স সিলগালা করে রাখা হয়েছে। শনিবার সকাল থেকেই ভোট গণনা শুরু হবে। তিনি আরও বলেন, প্রার্থীরা ঐক্যবদ্ধ হয়ে স্বীকার করেছেন ফলাফল যা হবে সেটাই তারা মেনে নেবেন।

যশোর জেলা পরিবহনসংস্থা শ্রমিক ইউনিয়নের নির্বাচন সম্পন্ন

প্রকাশের সময় : ০৯:২৪:৫৬ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৮ মে ২০২৪

যশোরে জেলা পরিবহন সংস্থা শ্রমিক ইউনিয়নের ত্রি-বার্ষিক নির্বাচনের ভোট গ্রহন শেষ হয়েছে উৎসবমূখর পরিবেশে।শুক্রবার সকাল ৮টা থেকে শুরু হয়ে বিকেল ৫টা পর্যন্ত যশোর সরকারি সিটি কলেজে শান্তিপূর্ণভাবে ভোট গ্রহন শেষ হয়। নির্বাচনে আট হাজার ২শ’৩৯ জন ভোটারের মধ্যে ৭ হাজার ১শ’ ১৭ জন তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। কলেজের ২০০টি বুথে এ ভোট গ্রহন চলে। ২৪ টি বাক্সে ব্যালট ফেলা হয়। ভোটগ্রহন শেষে ব্যালট ভর্তি ড্রামগুলো পরিবহন সংস্থা শ্রমিক ইউনিয়নের কার্যালয়ের একটি রুমে তালাবদ্ধ করে তা সিলগালা করা হয়। শনিবার সকাল ৮টা থেকে ভোট গণনা শুরু হবে। ধারণা করা হচ্ছে শনিবার সন্ধ্যা নাগাদ ফলাফল প্রকাশ করা সম্ভব হবে।
এদিন নির্বাচনকে কেন্দ্র করে শুক্রবার ভোর থেকেই সিটি কলেজ ক্যাম্পাসে শ্রমিক নেতাকর্মীরা জড়ো হতে থাকে। সকাল হলেই লোকে লোকারণ্য হয়ে যায় সিটি কলেজ এলাকাসহ আশপাশের এলাকা। বসানো হয় প্রার্থীদের নির্বাচনী ট্রেন্ট।
নির্বাচনা পরিচালনা কমিটি জানায়, এবারের নির্বাচনে ইউনিয়নের নয়টি পোর্ট ফোলিও’র ১৭টি পদে ৬১ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বীতা করেছেন।
তারা হলেন, সভাপতি পদে সেলিম রেজা মিঠু (ডালরেন্স), মামুনুর রশিদ বাচ্চু (মিনার) ও শাহেদ হোসেন জনি (হেলিকপ্টার), সহসভাপতি পদে আসাদুজ্জামান সুমন (গরুর গাড়ি), আবু হাসান (আনারস), মারুফ হোসেন (বটগাছ), রতন অধিকারী (মই), রবিউল হোসেন লবিন (তবলা), ষষ্টি দত্ত (তরবারি) ও হাদিউজ্জামান (চরকা), সাধারণ সম্পাদক পদে ইমান আলী (গোলাপ ফুল), আব্দুল ওয়াদুদ (বাইসাইকেল) ও মোর্ত্তূজা হোসেন (ফুটবল), যুগ্ম সম্পাদক পদে মিজানুর রহমান (একতারা) ও রবিউল ইসলাম মিন্টু গাজী (মোরগ), সহসাধারণ সম্পাদক পদে কাবিবুর রহমান টুটুল (বালতি), কামরুল ইসলাম (হাতুড়ি), মুজিবর রহমান সরদার (হাঁস), রফিকুল হাসান ডাবলু (ময়ূর), সেলিম রেজা (মোমবাতি) ও হারুন অর রশিদ ফুলু (মাইক), সাংগঠনিক সম্পাদক পদে টিপু সুলতান (কোদাল) ও রিয়াজ উদ্দিন (কলা), প্রচার সম্পাদক পদে জাহাঙ্গীর হোসেন (কুলা), শেখ নান্টু (তীর ধনুক), আব্দুর রাজ্জাক (উট), আব্দুর রহমান মিন্টু (ঠেলা গাড়ি) ও আব্দুর রহিম খাঁ বাবু (খেজুর গাছ),কোষাধ্যক্ষ পদে কামাল হোসেন (হাতি), নজরুল ইসলাম (টেবিল ফ্যান) ও শহিদুল ইসলাম (স্লাাইসরেন্স), কার্যকরী সদস্য পদে ইমরান (কুঁড়েঘর), ইসরাফিল (হাতপাখা), এনায়েত হোসেন (দোয়েল পাখি), এমদাদুল হক (চশমা), এরশাদ আলী (তারা), আব্দুল আজিজ (টেলিভিশন), আনোয়ার বিশ্বাস (পানির বোতল), আবু মুসা (কলস), আলী হুসাইন (বাস), আসিফ খান (বাঘ), আসাদুজ্জামান (দোয়াত-কলম), আব্দুল করিম (কলম), আবু কাশেম (গাভী), শেখ চঞ্চল (ঘোড়া), জাকির হোসেন (গামছা), জাহাঙ্গীর হোসেন (চিংড়িমাছ), জাহাঙ্গীর হোসেন (প্রজাপতি), তরিকুল ইসলাম (ছাতা), মোহাম্মদ আলী (কাস্তে), মিজানুর রহমান (ঘুড়ি), মনিরুজ্জামান মনি (মোটরসাইকেল), মনিরুল ইসলাম (টায়ার), খন্দকার মাসুদুজ্জামান (দেয়াল-ঘড়ি), আব্দুর রউফ (পাঞ্জা), শেখ রাজু (রুই মাছ), রবিউল ইসলাম (আম), শিমুল বিশ্বাস (রিকশা), শহিদুজ্জামান সহিদ (হরিণ), হাফিজুর রহমান (ডাব) মার্কা।
নির্বাচন পরিচালনা কমিটির চেয়ারম্যান জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট আবু মোর্ত্তজা ছোট জানান, ভোট গণনার পর ব্যালট বাক্স সিলগালা করে রাখা হয়েছে। শনিবার সকাল থেকেই ভোট গণনা শুরু হবে। তিনি আরও বলেন, প্রার্থীরা ঐক্যবদ্ধ হয়ে স্বীকার করেছেন ফলাফল যা হবে সেটাই তারা মেনে নেবেন।