সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ওবায়দুল কাদের হলেন আ. লীগের বিনোদন মন্ত্রী: ইরান

ছবি: সংগৃহীত

বাংলাদেশ লেবার পার্টির চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান ইরান বলেছেন, ওবায়দুল কাদের হলেন আওয়ামী লীগের বিনোদন মন্ত্রী। তিনি বলছেন, বাংলাদেশ ব্যাংকে সাংবাদিক প্রবেশ করতে দেওয়ার দরকার নেই। ব্যাংক থেকে যত টাকা পাচার হয়েছে, তার জন্য দায়ী আওয়ামী লীগ নেতাকর্মী ও তাদের আত্মীয়রা।

বুধবার (২২ মে) প্রেস ক্লাবের সামনে বাংলাদেশ লেবার পার্টি কর্তৃক আয়োজিত এক বিক্ষোভ সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ২০০৯ সালে শেখ হাসিনা বিনামূল্যে সার, ঘরে ঘরে চাকরি ও ১০ টাকায় চাল দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। অথচ ক্ষমতায় আসার পর আওয়ামী লীগ ও তার সহযোগী দলগুলো দেশকে নরকে পরিণত করেছে। দেশের ব্যাংকগুলো আজ দেউলিয়া হয়ে গেছে। বাংলাদেশ ব্যাংকে সাংবাদিক প্রবেশ নিষিদ্ধ করা হয়েছে আমরা জানতে চাই, বাংলাদেশ ব্যাংক কি কোনো নিষিদ্ধ পল্লী, যেখানে সাংবাদিক প্রবেশ করতে দেওয়া যাবে না। মূলত আওয়ামী লীগের দুর্নীতি ও দুঃশাসনের ফলে দেশের আজ এ অবস্থা।

ইরান বলেন, আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে জনগণ ঐক্যবদ্ধ হয়েছে। ৭ জানুয়ারির নির্বাচনে জনগণ ভোটকেন্দ্রে যায়নি। উপজেলা নির্বাচনেও ১০ শতাংশ জনগণ যায়নি।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার জনগণকে বোকা বানিয়ে ৩ মাস পর পর বিদ্যুতের দাম বাড়ায়। অর্থনৈতিক চাপে মানুষ আজ দিশেহারা, বাজারে গেলে মানুষের বোবাকান্না শোনা যায়। দেশের প্রত্যেকটা মানুষের উচিত শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে মামলা করা। যদিও জজকোর্ট, হাইকোর্ট সব ধরনের বিচার ব্যবস্থাকে শেখ হাসিনা দলীয়করণ করে ফেলেছেন।

ওবায়দুল কাদের হলেন আ. লীগের বিনোদন মন্ত্রী: ইরান

প্রকাশের সময় : ০৪:৪৭:০৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ২২ মে ২০২৪

বাংলাদেশ লেবার পার্টির চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান ইরান বলেছেন, ওবায়দুল কাদের হলেন আওয়ামী লীগের বিনোদন মন্ত্রী। তিনি বলছেন, বাংলাদেশ ব্যাংকে সাংবাদিক প্রবেশ করতে দেওয়ার দরকার নেই। ব্যাংক থেকে যত টাকা পাচার হয়েছে, তার জন্য দায়ী আওয়ামী লীগ নেতাকর্মী ও তাদের আত্মীয়রা।

বুধবার (২২ মে) প্রেস ক্লাবের সামনে বাংলাদেশ লেবার পার্টি কর্তৃক আয়োজিত এক বিক্ষোভ সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ২০০৯ সালে শেখ হাসিনা বিনামূল্যে সার, ঘরে ঘরে চাকরি ও ১০ টাকায় চাল দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। অথচ ক্ষমতায় আসার পর আওয়ামী লীগ ও তার সহযোগী দলগুলো দেশকে নরকে পরিণত করেছে। দেশের ব্যাংকগুলো আজ দেউলিয়া হয়ে গেছে। বাংলাদেশ ব্যাংকে সাংবাদিক প্রবেশ নিষিদ্ধ করা হয়েছে আমরা জানতে চাই, বাংলাদেশ ব্যাংক কি কোনো নিষিদ্ধ পল্লী, যেখানে সাংবাদিক প্রবেশ করতে দেওয়া যাবে না। মূলত আওয়ামী লীগের দুর্নীতি ও দুঃশাসনের ফলে দেশের আজ এ অবস্থা।

ইরান বলেন, আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে জনগণ ঐক্যবদ্ধ হয়েছে। ৭ জানুয়ারির নির্বাচনে জনগণ ভোটকেন্দ্রে যায়নি। উপজেলা নির্বাচনেও ১০ শতাংশ জনগণ যায়নি।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার জনগণকে বোকা বানিয়ে ৩ মাস পর পর বিদ্যুতের দাম বাড়ায়। অর্থনৈতিক চাপে মানুষ আজ দিশেহারা, বাজারে গেলে মানুষের বোবাকান্না শোনা যায়। দেশের প্রত্যেকটা মানুষের উচিত শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে মামলা করা। যদিও জজকোর্ট, হাইকোর্ট সব ধরনের বিচার ব্যবস্থাকে শেখ হাসিনা দলীয়করণ করে ফেলেছেন।