বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ৪ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

এলাচ চা পানের উপকারিতা

ছবি-সংগৃহীত

সুস্বাস্থ্যের ভিত্তি আমাদের রান্নাঘর থেকেই শুরু হয়। এক্ষেত্রে বিভিন্ন মসলা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। শুধুমাত্র খাবারের স্বাদ বাড়াতেই নয় বরং বেশ কিছু স্বাস্থ্য সুবিধাও রয়েছে এসব মসলার। বিভিন্ন মসলা দিয়ে তৈরি পানীয় এর স্বাস্থ্য উপকারিতার জন্যই জনপ্রিয়। তেমনই একটি মসলাযুক্ত পানীয় হলো এলাচ চা।

এলাচের রয়েছে একাধিক স্বাস্থ্য উপকারিতা। এই মসলার সমস্ত উপকারিতা লাভর করার একটি সহজ উপায় হলো এলাচ চা পান করা। এটি শুধু সুস্বাদুই নয়, বরং আপনার সামগ্রিক স্বাস্থ্যের উন্নতি করতেও সহায়ক। চলুন জেনে নেওয়া যাক এলাচ চা পানের উপকারিতা-

১. হজম স্বাস্থ্যের উন্নতি

এলাচ হজমের বিভিন্ন সমস্যা থেকে মুক্তি দেওয়ার জন্য পরিচিত। ইন্ডিয়ান জার্নাল অফ মেডিক্যাল রিসার্চ-এ প্রকাশিত ২০০৪ সালের একটি গবেষণা অনুসারে, এলাচ ফেনোলিক যৌগ, উদ্বায়ী তেল এবং ফিক্সড অয়েলে পরিপূর্ণ। যেগুলো বহু বছর ধরে ঔষধিভাবে হজম সহায়ক হিসাবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে। এই তেলগুলো অতিরিক্ত গ্যাস উপশম করতে সাহায্য করে, হজমের স্বাস্থ্যের উন্নতি করে এবং অন্ত্রকে প্রাকৃতিক সহায়তা দেয়। তাই আপনি যদি প্রতিদিন এলাচ চা পান করেন তবে হজমের সমস্যাকে বিদায় দিতে পারবেন।

২. অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল বৈশিষ্ট্য

এলাচের অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল প্রভাব রয়েছে যা আপনাকে সংক্রমণের বিরুদ্ধে লড়াই করতে সাহায্য করতে পারে। মলিকিউলস জার্নালে প্রকাশিত ২০০৮ সালের একটি গবেষণায় দেখা গেছে যে, এলাচের এসেন্সিয়াল অয়েল বিভিন্ন ধরনের ছত্রাক এবং ব্যাকটেরিয়াকে কার্যকরভাবে মেরে ফেলতে পারে। এটি সাধারণ রোগজীবাণুর বিরুদ্ধে লড়াই করতে এবং সম্ভাব্য সংক্রমণ প্রতিরোধে সহায়তা করে। তাই প্রতিদিন এলাচ চা পান করলে তা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাকে শক্তিশালী করতে এবং ক্ষতিকারক জীবাণুর বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য শরীরের ক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করবে।

৩. অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট বৈশিষ্ট্য

মলিকিউলস জার্নালে প্রকাশিত ২০১৩ সালের একটি গবেষণা অনুসারে, এলাচ টারপেনস এবং ফেনোলিক যৌগের মতো বায়োঅ্যাকটিভ যৌগে সমৃদ্ধ যা শক্তিশালী অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট বৈশিষ্ট্য সমৃদ্ধ। এগুলো শরীরের ক্ষতিকারক ফ্রি র‌্যাডিক্যালকে দূর করতে সাহায্য করে যা অক্সিডেটিভ স্ট্রেস সৃষ্টি করতে পারে। আপনি যদি প্রতিদিন এলাচ চা পান করেন তবে এটি সামগ্রিক অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট গ্রহণে সাহায্য করবে। আপনার কোষ রক্ষা করতে এবং সামগ্রিকভাবে সুস্থতা বজায় রাখতেও সাহায্য করবে।

এলাচ চা পানের উপকারিতা

প্রকাশের সময় : ০৩:১০:৫৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ৮ জুন ২০২৪

সুস্বাস্থ্যের ভিত্তি আমাদের রান্নাঘর থেকেই শুরু হয়। এক্ষেত্রে বিভিন্ন মসলা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। শুধুমাত্র খাবারের স্বাদ বাড়াতেই নয় বরং বেশ কিছু স্বাস্থ্য সুবিধাও রয়েছে এসব মসলার। বিভিন্ন মসলা দিয়ে তৈরি পানীয় এর স্বাস্থ্য উপকারিতার জন্যই জনপ্রিয়। তেমনই একটি মসলাযুক্ত পানীয় হলো এলাচ চা।

এলাচের রয়েছে একাধিক স্বাস্থ্য উপকারিতা। এই মসলার সমস্ত উপকারিতা লাভর করার একটি সহজ উপায় হলো এলাচ চা পান করা। এটি শুধু সুস্বাদুই নয়, বরং আপনার সামগ্রিক স্বাস্থ্যের উন্নতি করতেও সহায়ক। চলুন জেনে নেওয়া যাক এলাচ চা পানের উপকারিতা-

১. হজম স্বাস্থ্যের উন্নতি

এলাচ হজমের বিভিন্ন সমস্যা থেকে মুক্তি দেওয়ার জন্য পরিচিত। ইন্ডিয়ান জার্নাল অফ মেডিক্যাল রিসার্চ-এ প্রকাশিত ২০০৪ সালের একটি গবেষণা অনুসারে, এলাচ ফেনোলিক যৌগ, উদ্বায়ী তেল এবং ফিক্সড অয়েলে পরিপূর্ণ। যেগুলো বহু বছর ধরে ঔষধিভাবে হজম সহায়ক হিসাবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে। এই তেলগুলো অতিরিক্ত গ্যাস উপশম করতে সাহায্য করে, হজমের স্বাস্থ্যের উন্নতি করে এবং অন্ত্রকে প্রাকৃতিক সহায়তা দেয়। তাই আপনি যদি প্রতিদিন এলাচ চা পান করেন তবে হজমের সমস্যাকে বিদায় দিতে পারবেন।

২. অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল বৈশিষ্ট্য

এলাচের অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল প্রভাব রয়েছে যা আপনাকে সংক্রমণের বিরুদ্ধে লড়াই করতে সাহায্য করতে পারে। মলিকিউলস জার্নালে প্রকাশিত ২০০৮ সালের একটি গবেষণায় দেখা গেছে যে, এলাচের এসেন্সিয়াল অয়েল বিভিন্ন ধরনের ছত্রাক এবং ব্যাকটেরিয়াকে কার্যকরভাবে মেরে ফেলতে পারে। এটি সাধারণ রোগজীবাণুর বিরুদ্ধে লড়াই করতে এবং সম্ভাব্য সংক্রমণ প্রতিরোধে সহায়তা করে। তাই প্রতিদিন এলাচ চা পান করলে তা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাকে শক্তিশালী করতে এবং ক্ষতিকারক জীবাণুর বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য শরীরের ক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করবে।

৩. অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট বৈশিষ্ট্য

মলিকিউলস জার্নালে প্রকাশিত ২০১৩ সালের একটি গবেষণা অনুসারে, এলাচ টারপেনস এবং ফেনোলিক যৌগের মতো বায়োঅ্যাকটিভ যৌগে সমৃদ্ধ যা শক্তিশালী অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট বৈশিষ্ট্য সমৃদ্ধ। এগুলো শরীরের ক্ষতিকারক ফ্রি র‌্যাডিক্যালকে দূর করতে সাহায্য করে যা অক্সিডেটিভ স্ট্রেস সৃষ্টি করতে পারে। আপনি যদি প্রতিদিন এলাচ চা পান করেন তবে এটি সামগ্রিক অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট গ্রহণে সাহায্য করবে। আপনার কোষ রক্ষা করতে এবং সামগ্রিকভাবে সুস্থতা বজায় রাখতেও সাহায্য করবে।