বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ৪ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কাশ্মীরে সন্ত্রাসীদের গুলিতে খাদে পড়ল বাস, নিহত ৯

ছবি-সংগৃহীত

ভারতের কাশ্মীরে তীর্থযাত্রী বহনকারী একটি বাসে গুলি চালায় জঙ্গিরা। গুলি এড়াতে গিয়েই নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে যায় বাসটি। এতে নয়জন নিহত এবং কমপক্ষে ৩৩ জন আহত হয়েছেন।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়, রবিবার একদিকে যেখানে প্রধানমন্ত্রী হিসাবে নরেন্দ্র মোদিরর শপথ গ্রহণ ছিল, সেসময়ই জম্মু-কাশ্মীরে এই জঙ্গি হামলা চালানো হলো।

রিয়াসির জেলাশাসক বিশেষ মহাজন ও পুলিশ সুপার মোহিত শর্মা জানিয়েছেন, শিব খোরি মন্দিরে যাচ্ছিল বাসটি। মাঝপথেই বাসটি লক্ষ্য করে এলোপাথাড়ি গুলি চালাতে শুরু করে জঙ্গিরা। কমপক্ষে ৩০ থেকে ৩৫ রাউন্ড গুলি চালানো হয়েছে বাসে। জঙ্গিদের গুলি থেকে যাত্রীদের বাঁচানোর চেষ্টা করতে গিয়েই বাসের চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলেন এবং বাসটি গভীর খাদে পড়ে যায়।

পুলিশ সুপার আরও জানিয়েছেন, উদ্ধারের কাজ শেষ হয়েছে। যারা বাসে ছিলেন, তারা স্থানীয় মানুষ নন। তাদের পুরো পরিচয় এখনো জানা যায়নি। শিব খোরি মন্দিরের কোনো ক্ষতি হয়নি। সন্ত্রাসীদের খোঁজে তল্লাশি চলছে।

এদিকে হামলার পর থেকেই জঙ্গিদের ধরতে অভিযানে নেমেছে পুলিশ, সেনা ও আধা সামরিক বাহিনী।

সূত্রের খবর, রাজৌরি, পুঞ্চ এবং রিয়াসি জেলার পাহাড়ি এলাকায় লুকিয়ে রয়েছে জঙ্গিরা। তাদের ধরতে রাত থেকেই তল্লাশি অভিযান শুরু হয়েছে। সকাল থেকে জঙ্গলের উপর দিয়ে ওড়ানো হচ্ছে ড্রোন।

অন্যদিকে, জঙ্গি হামলা ও তীর্থযাত্রীদের মৃত্যুর খবরে শোক প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তিনি সবরকমের সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও শোক প্রকাশ করেছেন এবং অবিলম্বে তদন্তের দাবি জানিয়েছেন।

কাশ্মীরে সন্ত্রাসীদের গুলিতে খাদে পড়ল বাস, নিহত ৯

প্রকাশের সময় : ১২:৩৬:১৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ১০ জুন ২০২৪

ভারতের কাশ্মীরে তীর্থযাত্রী বহনকারী একটি বাসে গুলি চালায় জঙ্গিরা। গুলি এড়াতে গিয়েই নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে যায় বাসটি। এতে নয়জন নিহত এবং কমপক্ষে ৩৩ জন আহত হয়েছেন।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়, রবিবার একদিকে যেখানে প্রধানমন্ত্রী হিসাবে নরেন্দ্র মোদিরর শপথ গ্রহণ ছিল, সেসময়ই জম্মু-কাশ্মীরে এই জঙ্গি হামলা চালানো হলো।

রিয়াসির জেলাশাসক বিশেষ মহাজন ও পুলিশ সুপার মোহিত শর্মা জানিয়েছেন, শিব খোরি মন্দিরে যাচ্ছিল বাসটি। মাঝপথেই বাসটি লক্ষ্য করে এলোপাথাড়ি গুলি চালাতে শুরু করে জঙ্গিরা। কমপক্ষে ৩০ থেকে ৩৫ রাউন্ড গুলি চালানো হয়েছে বাসে। জঙ্গিদের গুলি থেকে যাত্রীদের বাঁচানোর চেষ্টা করতে গিয়েই বাসের চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলেন এবং বাসটি গভীর খাদে পড়ে যায়।

পুলিশ সুপার আরও জানিয়েছেন, উদ্ধারের কাজ শেষ হয়েছে। যারা বাসে ছিলেন, তারা স্থানীয় মানুষ নন। তাদের পুরো পরিচয় এখনো জানা যায়নি। শিব খোরি মন্দিরের কোনো ক্ষতি হয়নি। সন্ত্রাসীদের খোঁজে তল্লাশি চলছে।

এদিকে হামলার পর থেকেই জঙ্গিদের ধরতে অভিযানে নেমেছে পুলিশ, সেনা ও আধা সামরিক বাহিনী।

সূত্রের খবর, রাজৌরি, পুঞ্চ এবং রিয়াসি জেলার পাহাড়ি এলাকায় লুকিয়ে রয়েছে জঙ্গিরা। তাদের ধরতে রাত থেকেই তল্লাশি অভিযান শুরু হয়েছে। সকাল থেকে জঙ্গলের উপর দিয়ে ওড়ানো হচ্ছে ড্রোন।

অন্যদিকে, জঙ্গি হামলা ও তীর্থযাত্রীদের মৃত্যুর খবরে শোক প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তিনি সবরকমের সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও শোক প্রকাশ করেছেন এবং অবিলম্বে তদন্তের দাবি জানিয়েছেন।