বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

যশোরে দিন-দুপুরে এইচএসসি পরীক্ষার্থী অপহরণ-মুক্তিপণ দাবি

  • যশোর অফিস।।
  • প্রকাশের সময় : ১১:১৪:৫৬ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৫ জুলাই ২০২৪
  • ১২

যশোর হামিদপুরে দিন-দুপুরে সোহান পারভেজ নামে এক কলেজ ছাত্রকে অপহরণ করে চাকুসহ পুলিশের হাতে আটক কিশোর গ্যাংয়ের ৪ সদস্য। তারা অপহরণের পর স্থানীয় একটি আম বাগানে নেয়। সেখানে চাকু দেখিয়ে হত্যার ভয় দেখায়। এক পর্যায়ে ছেলেটির মা কানিজ ফাতিমাকে মোবাইল ফোনে করে ১০ হাজার টাকা এনে ছেলেকে নিয়ে যেতে বলে।

সোহান পারভেজ ভায়নার দক্ষিণপাড়ার ফারুক আজমের ছেলে। অপহরণ ও মুক্তিপণ চাওয়া কিশোর গ্যাংয়ের সদস্যরা হলেন-ভায়না ছাতিয়ানতলার মকছেদ মোল্লার ছেলে মিরাজ, হামিদপুরের শওকত মাহমুদের ছেলে সিজান মাহমুদ, চাঁচড়ার নুরুল ইসলামের ছেলে মাহিদুল ইসলাম ও ছাতিয়ানতলার আব্দুর রশিদের ছেলে নিশান। তারা দারাজ থেকে চাকু কিনেছে বলে স্বীকার করেছে।

 বৃহস্পতিবার ৪ জুলাই দুপুর ২টার দিকে হামিদপুর আল-হেরা কলেজে এইচএসসি পরীক্ষা দিয়ে বের হলে তারা সোহান পারভেজকে রাস্তা থেকে অপহরণ করে।

অপহরণের শিকার সোহানের মা বলেন, আমি স্বামী পরিত্যক্ততা। বহু কষ্টে ছেলেকে লেখাপড়া করাচ্ছি। এতো টাকা মুক্তিপণ দেয়ার সামর্থ্য নেই। নিরুপায় হয়ে চাঁনপাড়া পুলিশ ফাঁড়িতে যাই।

চাঁনপাড়া পুলিশ ফাঁড়ির আইসি হুমায়ুন আহমেদ জানান-সোহানের মা অভিযোগ দেয়ার সাথে সাথে ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে যাই। কিশোর গ্যাংয়ের সদস্যরা কোনো কিছু বুঝে উঠার আগেই তাদের চাকুসহ আটক করতে সমর্থ হয়েছি। তাদের কাছ থেকে একটি অত্যাধুনিক চাকু উদ্ধার হয়েছে।

যশোরে দিন-দুপুরে এইচএসসি পরীক্ষার্থী অপহরণ-মুক্তিপণ দাবি

প্রকাশের সময় : ১১:১৪:৫৬ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৫ জুলাই ২০২৪

যশোর হামিদপুরে দিন-দুপুরে সোহান পারভেজ নামে এক কলেজ ছাত্রকে অপহরণ করে চাকুসহ পুলিশের হাতে আটক কিশোর গ্যাংয়ের ৪ সদস্য। তারা অপহরণের পর স্থানীয় একটি আম বাগানে নেয়। সেখানে চাকু দেখিয়ে হত্যার ভয় দেখায়। এক পর্যায়ে ছেলেটির মা কানিজ ফাতিমাকে মোবাইল ফোনে করে ১০ হাজার টাকা এনে ছেলেকে নিয়ে যেতে বলে।

সোহান পারভেজ ভায়নার দক্ষিণপাড়ার ফারুক আজমের ছেলে। অপহরণ ও মুক্তিপণ চাওয়া কিশোর গ্যাংয়ের সদস্যরা হলেন-ভায়না ছাতিয়ানতলার মকছেদ মোল্লার ছেলে মিরাজ, হামিদপুরের শওকত মাহমুদের ছেলে সিজান মাহমুদ, চাঁচড়ার নুরুল ইসলামের ছেলে মাহিদুল ইসলাম ও ছাতিয়ানতলার আব্দুর রশিদের ছেলে নিশান। তারা দারাজ থেকে চাকু কিনেছে বলে স্বীকার করেছে।

 বৃহস্পতিবার ৪ জুলাই দুপুর ২টার দিকে হামিদপুর আল-হেরা কলেজে এইচএসসি পরীক্ষা দিয়ে বের হলে তারা সোহান পারভেজকে রাস্তা থেকে অপহরণ করে।

অপহরণের শিকার সোহানের মা বলেন, আমি স্বামী পরিত্যক্ততা। বহু কষ্টে ছেলেকে লেখাপড়া করাচ্ছি। এতো টাকা মুক্তিপণ দেয়ার সামর্থ্য নেই। নিরুপায় হয়ে চাঁনপাড়া পুলিশ ফাঁড়িতে যাই।

চাঁনপাড়া পুলিশ ফাঁড়ির আইসি হুমায়ুন আহমেদ জানান-সোহানের মা অভিযোগ দেয়ার সাথে সাথে ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে যাই। কিশোর গ্যাংয়ের সদস্যরা কোনো কিছু বুঝে উঠার আগেই তাদের চাকুসহ আটক করতে সমর্থ হয়েছি। তাদের কাছ থেকে একটি অত্যাধুনিক চাকু উদ্ধার হয়েছে।