বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কানাডাকে হারিয়ে কোপার ফাইনালে আর্জেন্টিনা

ছবি-সংগৃহীত

হুলিয়ান আলভারেজের সঙ্গে লিওনেল মেসির গোলে কানাডাকে ২-০ গোলে হারিয়ে কোপা আমেরিকার আরেকটি ফাইনালে পা রেখেছে আর্জেন্টিনা। বলতে গেলে তিনবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা একক আধিপত্য বিস্তার করেই ফাইনাল নিশ্চিত করে।

আর এক ম্যাচ জিতলেই বিশ্বকাপের পর আরও এক শিরোপা নিজেদের করে নেবে মেসিরা।

বুধবার (১০ জুলাই) বাংলাদেশ সময় সকালে নিউ জার্সির মেট লাইফ স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচে ২২ মিনিটে প্রথম লিড নেয় গত আসরের কোপা আমেরিকা জয়ী আর্জেন্টিনা।

মিডফিল্ডার রদ্রিগো ডি পলের বাড়িয়ে দেওয়া পাসে শট নিয়ে বল জালে পাঠান শুরুর একাদশে ফেরা হুলিয়ান আলভারেজ।

দ্বিতীয়ার্ধে দ্বিতীয় গোল পায় আলবিসেলেস্তেরা। ম্যাচের ৫১ মিনিটে গোল করেন লিওনেল মেসি। তাকে গোল করান এনজো ফার্নান্দেজ।

আর্জেন্টিনার তোলা আক্রমণ কানাডার বক্স থেকে ফিরে বাইরে থাকা এনেজোর কাছে আসে।  জোরের ওপর ভলি নেন চেলসিতে খেলা তরুণ এই মিডফিল্ডার। মেসি ওই শটে আলতো করে পা ছুঁইয়ে জালে পাঠিয়ে দেন।

এবারের কোপা আমেরিকায় মেসির এটি প্রথম গোল। কোপা আমেরিকায় এটি তার ১৪তম গোল। এর সঙ্গে দারুণ এক রেকর্ডও গড়েছেন লিও। ২০০৭ সাল থেকে অংশ নেওয়া কোপা আমেরিকায় ছয় আসরেই গোল পেয়েছেন তিনি।

আর্জেন্টিনা ২-০ গোলের লিড নেওয়ার পর আক্রমণ তীব্র করে কানাডা। ম্যাচে ফেরার চেষ্টায় মরিয়া হয়ে উঠেন তারা। কিন্তু প্রতিবারই আর্জেন্টিনার রক্ষণ লাইনে থাকা ক্রিস্টিয়ানো রোমেরো ও লিয়ান্দ্রো মার্টিনেজের দেয়াল আটকে যায়।

তারপরও ৯টি আক্রমণ করেছে প্রথমবার কোপা আমেরিকার সেমিফাইনালে খেলা কানাডা।

কোপা আমেরিকার অন্য সেমিফাইনালে বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) সকালে মুখোমুখি হবে উরুগুয়ে ও কলম্বিয়া।

গেল আট কোপার মধ্যে ষষ্ঠবার ফাইনালে উঠলো তারা। ওই ম্যাচের জয়ী দল আর্জেন্টিনার বিপক্ষে শিরোপার লড়াইয়ে নামবে।

কানাডাকে হারিয়ে কোপার ফাইনালে আর্জেন্টিনা

প্রকাশের সময় : ০৯:৩৪:৩৯ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১০ জুলাই ২০২৪

হুলিয়ান আলভারেজের সঙ্গে লিওনেল মেসির গোলে কানাডাকে ২-০ গোলে হারিয়ে কোপা আমেরিকার আরেকটি ফাইনালে পা রেখেছে আর্জেন্টিনা। বলতে গেলে তিনবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা একক আধিপত্য বিস্তার করেই ফাইনাল নিশ্চিত করে।

আর এক ম্যাচ জিতলেই বিশ্বকাপের পর আরও এক শিরোপা নিজেদের করে নেবে মেসিরা।

বুধবার (১০ জুলাই) বাংলাদেশ সময় সকালে নিউ জার্সির মেট লাইফ স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচে ২২ মিনিটে প্রথম লিড নেয় গত আসরের কোপা আমেরিকা জয়ী আর্জেন্টিনা।

মিডফিল্ডার রদ্রিগো ডি পলের বাড়িয়ে দেওয়া পাসে শট নিয়ে বল জালে পাঠান শুরুর একাদশে ফেরা হুলিয়ান আলভারেজ।

দ্বিতীয়ার্ধে দ্বিতীয় গোল পায় আলবিসেলেস্তেরা। ম্যাচের ৫১ মিনিটে গোল করেন লিওনেল মেসি। তাকে গোল করান এনজো ফার্নান্দেজ।

আর্জেন্টিনার তোলা আক্রমণ কানাডার বক্স থেকে ফিরে বাইরে থাকা এনেজোর কাছে আসে।  জোরের ওপর ভলি নেন চেলসিতে খেলা তরুণ এই মিডফিল্ডার। মেসি ওই শটে আলতো করে পা ছুঁইয়ে জালে পাঠিয়ে দেন।

এবারের কোপা আমেরিকায় মেসির এটি প্রথম গোল। কোপা আমেরিকায় এটি তার ১৪তম গোল। এর সঙ্গে দারুণ এক রেকর্ডও গড়েছেন লিও। ২০০৭ সাল থেকে অংশ নেওয়া কোপা আমেরিকায় ছয় আসরেই গোল পেয়েছেন তিনি।

আর্জেন্টিনা ২-০ গোলের লিড নেওয়ার পর আক্রমণ তীব্র করে কানাডা। ম্যাচে ফেরার চেষ্টায় মরিয়া হয়ে উঠেন তারা। কিন্তু প্রতিবারই আর্জেন্টিনার রক্ষণ লাইনে থাকা ক্রিস্টিয়ানো রোমেরো ও লিয়ান্দ্রো মার্টিনেজের দেয়াল আটকে যায়।

তারপরও ৯টি আক্রমণ করেছে প্রথমবার কোপা আমেরিকার সেমিফাইনালে খেলা কানাডা।

কোপা আমেরিকার অন্য সেমিফাইনালে বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) সকালে মুখোমুখি হবে উরুগুয়ে ও কলম্বিয়া।

গেল আট কোপার মধ্যে ষষ্ঠবার ফাইনালে উঠলো তারা। ওই ম্যাচের জয়ী দল আর্জেন্টিনার বিপক্ষে শিরোপার লড়াইয়ে নামবে।