শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ভারতে পাচারকালে ৯ বন্যপ্রাণী উদ্ধার সাতক্ষীরায়

আতাউর রহমান, সাতক্ষীরা ব্যুরো।। বাংলাদেশ থেকে ভারতে পাচারকালে সাতক্ষীরার বিভিন্ন সীমান্ত থেকে নয়টি বন্যপ্রাণী উদ্ধার করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)। উদ্ধার হওয়া বন্যপ্রাণীর মধ্যে রয়েছে ভোদড় (উদবিড়াল) দুইটি, বিদেশি খরগোশ ছয়টি ও একটি ঈগল পাখি। তবে এ সময় কোনো চোরাকারবারীকে আটক করতে পারেনি বিজিবি।

রবিবার (২২ আগস্ট) দুপুর ১টার দিকে বিজিবি ৩৩ ব্যাটালিয়ন কার্যালয়ে উদ্ধারকৃত বন্যপ্রাণীগুলো বনবিভাগের কাছে হস্তান্তর করেন, বিজিবি অধিনায়ক লে. কর্নেল মোহাম্মদ আল মাহমুদ। বন বিভাগের পক্ষ থেকে পশ্চিম সুন্দরবন সাতক্ষীরা রেঞ্চের বুড়িগোয়ালীনি ফরেস্ট স্টেশন কর্মকর্তা সুলতান আহম্মেদ ও ফরেস্ট গার্ড দেলোয়ার হোসেন এসব বন্যপ্রাণীগুলো নিজেদের জিম্মায় নেন।

সাতক্ষীরা ৩৩ বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্নেল মোহাম্মদ আল মাহমুদ এ সময় জানান, চোরাকারবারীরা এসব বন্যপ্রাণীগুলো সাতক্ষীরার বিভিন্ন সীমান্ত দিয়ে ভারতে পাচারের চেষ্টা করছিলো। সীমান্তে বিজিবির নিয়মিত টহলকালে এ বন্যপ্রাণীগুলো উদ্ধার করা হয়। তবে কোনো চোরাকারবরীকে আটক করা সম্ভব হয়নি। বন্যপ্রাণীগুলো বনবিভাগের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। তারা এগুলো সুন্দরবনে অবমুক্ত করবেন।

পশ্চিম সুন্দরবন সাতক্ষীরা রেঞ্চের বুড়িগোয়ালীনি ফরেস্ট স্টেশন কর্মকর্তা সুলতান আহম্মেদ জানান, সুন্দরবনে বন্যপ্রাণী রক্ষায় বন বিভাগ সব সময় তৎপর রয়েছে। এরমধ্যেই চোরা শিকারীরা মাঝে মধ্যে বন্যপ্রাণী শিকার করে।

তিনি আরো জানান, ৯টি বন্যপ্রাণী বিজিবির কাছ থেকে বনবিভাগের আওতায় নেয়া হয়েছে। এগুলো দ্রুত সময়ের মধ্যে সুন্দরবনের ভিতরে অবমুক্ত করা হবে।

ভারতে পাচারকালে ৯ বন্যপ্রাণী উদ্ধার সাতক্ষীরায়

প্রকাশের সময় : ০৬:৫৬:১১ অপরাহ্ন, রবিবার, ২২ অগাস্ট ২০২১

আতাউর রহমান, সাতক্ষীরা ব্যুরো।। বাংলাদেশ থেকে ভারতে পাচারকালে সাতক্ষীরার বিভিন্ন সীমান্ত থেকে নয়টি বন্যপ্রাণী উদ্ধার করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)। উদ্ধার হওয়া বন্যপ্রাণীর মধ্যে রয়েছে ভোদড় (উদবিড়াল) দুইটি, বিদেশি খরগোশ ছয়টি ও একটি ঈগল পাখি। তবে এ সময় কোনো চোরাকারবারীকে আটক করতে পারেনি বিজিবি।

রবিবার (২২ আগস্ট) দুপুর ১টার দিকে বিজিবি ৩৩ ব্যাটালিয়ন কার্যালয়ে উদ্ধারকৃত বন্যপ্রাণীগুলো বনবিভাগের কাছে হস্তান্তর করেন, বিজিবি অধিনায়ক লে. কর্নেল মোহাম্মদ আল মাহমুদ। বন বিভাগের পক্ষ থেকে পশ্চিম সুন্দরবন সাতক্ষীরা রেঞ্চের বুড়িগোয়ালীনি ফরেস্ট স্টেশন কর্মকর্তা সুলতান আহম্মেদ ও ফরেস্ট গার্ড দেলোয়ার হোসেন এসব বন্যপ্রাণীগুলো নিজেদের জিম্মায় নেন।

সাতক্ষীরা ৩৩ বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্নেল মোহাম্মদ আল মাহমুদ এ সময় জানান, চোরাকারবারীরা এসব বন্যপ্রাণীগুলো সাতক্ষীরার বিভিন্ন সীমান্ত দিয়ে ভারতে পাচারের চেষ্টা করছিলো। সীমান্তে বিজিবির নিয়মিত টহলকালে এ বন্যপ্রাণীগুলো উদ্ধার করা হয়। তবে কোনো চোরাকারবরীকে আটক করা সম্ভব হয়নি। বন্যপ্রাণীগুলো বনবিভাগের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। তারা এগুলো সুন্দরবনে অবমুক্ত করবেন।

পশ্চিম সুন্দরবন সাতক্ষীরা রেঞ্চের বুড়িগোয়ালীনি ফরেস্ট স্টেশন কর্মকর্তা সুলতান আহম্মেদ জানান, সুন্দরবনে বন্যপ্রাণী রক্ষায় বন বিভাগ সব সময় তৎপর রয়েছে। এরমধ্যেই চোরা শিকারীরা মাঝে মধ্যে বন্যপ্রাণী শিকার করে।

তিনি আরো জানান, ৯টি বন্যপ্রাণী বিজিবির কাছ থেকে বনবিভাগের আওতায় নেয়া হয়েছে। এগুলো দ্রুত সময়ের মধ্যে সুন্দরবনের ভিতরে অবমুক্ত করা হবে।