মঙ্গলবার, ৩১ জানুয়ারী ২০২৩, ১৭ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

আওয়ামী লীগে পদ পেলেন জ্যোতিকা জ্যোতি

নাজমা খাতুন ## বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক উপকমিটিতে পদ পেলেন নাটক ও চলচ্চিত্রের পরিচিত মুখ এবং সাবেক ছাত্রনেত্রী জ্যোতিকা জ্যোতি। এই কমিটির সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন তিনি।

আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে বিদায়ী বছরের শেষ দিনে ৯৪ সদস্যবিশিষ্ট এ কমিটির অনুমোদন দেন দলটির সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

এই উপকমিটিতে চেয়ারম্যানের দায়িত্বে আছেন অধ্যাপক ড. খন্দকার বজলুল হক। সদস্য সচিব হিসেবে আছেন আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন।

প্রসঙ্গত, অভিনয়ের পাশাপাশি বহু আগে থেকেই রাজনীতেতে সক্রিয় অভিনেত্রী জ্যোতিকা জ্যোতি। ২০১৮ সালে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ময়মনসিংহ-৩ (গৌরীপুর) আসন থেকে উপনির্বাচন এবং সংসদ নির্বাচনে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছিলেন তিনি।

কিন্তু কোনো বারই আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন পাননি জ্যোতি। তবে দলের সিদ্ধান্তকে মেনে নিয়ে প্রতি বারই তিনি মনোনীত প্রার্থীর পক্ষে বেশ সরব ছিলেন রাজনীতির মাঠে। নির্বাচনী প্রচারণা চালিয়েছেন, ভোটও চেয়েছেন।

 

আপনার মন্তব্য লিখুন

লেখকের সম্পর্কে

Shahriar Hossain

দীর্ঘ ২৪ বছর পর একই মঞ্চে লতিফ সিদ্দিকী ও কাদের সিদ্দিকী

রাহুল-আথিয়া সাত পাকে বাঁধা পড়লেন

বেনাপোল নোম্যান্সল্যান্ডে বসবে দুই বাংলার ভাষা প্রেমীদের মিলন মেলা -শেখ আফিল উদ্দিন, এমপি

আওয়ামী লীগে পদ পেলেন জ্যোতিকা জ্যোতি

প্রকাশের সময় : ০১:০০:৩২ অপরাহ্ন, সোমবার, ৪ জানুয়ারী ২০২১

নাজমা খাতুন ## বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক উপকমিটিতে পদ পেলেন নাটক ও চলচ্চিত্রের পরিচিত মুখ এবং সাবেক ছাত্রনেত্রী জ্যোতিকা জ্যোতি। এই কমিটির সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন তিনি।

আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে বিদায়ী বছরের শেষ দিনে ৯৪ সদস্যবিশিষ্ট এ কমিটির অনুমোদন দেন দলটির সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

এই উপকমিটিতে চেয়ারম্যানের দায়িত্বে আছেন অধ্যাপক ড. খন্দকার বজলুল হক। সদস্য সচিব হিসেবে আছেন আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন।

প্রসঙ্গত, অভিনয়ের পাশাপাশি বহু আগে থেকেই রাজনীতেতে সক্রিয় অভিনেত্রী জ্যোতিকা জ্যোতি। ২০১৮ সালে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ময়মনসিংহ-৩ (গৌরীপুর) আসন থেকে উপনির্বাচন এবং সংসদ নির্বাচনে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছিলেন তিনি।

কিন্তু কোনো বারই আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন পাননি জ্যোতি। তবে দলের সিদ্ধান্তকে মেনে নিয়ে প্রতি বারই তিনি মনোনীত প্রার্থীর পক্ষে বেশ সরব ছিলেন রাজনীতির মাঠে। নির্বাচনী প্রচারণা চালিয়েছেন, ভোটও চেয়েছেন।