শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ভিএআরের কল্যাণে কষ্টার্জিত জয় বার্সার

স্প্যানিশ লা লিগায় বার্সেলোনার ভাগ্য ভালোই বলতে হবে। পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে থেকে শিরোপার পথে এগিয়ে চলছে তারা; কিন্তু পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে ওঠার জন্য যে জয়গুলো তাদের ঝুলিতে জমা হচ্ছে, সেগুলোর অধিকাংশই আসছে মাত্র ১-০ গোলের ব্যবধানে। সংশ্লিষ্ট ম্যাচগুলোতে যদি ওই একটি গোল না হতো! তাহলে বর্তমান অবস্থানে আসা তাদের পক্ষে সম্ভবই ছিল না।

রোববার রাতেও বার্সা জয় পেয়েছে। অ্যাথলেটিক বিলবাওয়ের মাঠে গিয়ে ১-০ গোলের ব্যবধানে জয় নিয়ে ঘরে ফিরেছে জাভি হার্নান্দেজের শিষ্যরা। বার্সার এই জয়ে একমাত্র গোলটি এসেছে ব্রাজিলিয়ান তারকা রাফিনহার পা থেকে।

মূলত ভিএআরেই রক্ষা পেয়েছে বার্সা। তাদের গোলটি এসেছে ভিএআরের কল্যাণে। আবার বিলবাওয়ের একটি গোল বাতিল হয় ভিএআরের কারণে। উল্টোটা হলে তো বার্সাকে পরাজয় নিয়েই মাঠ ছাড়তে হতো।

এই জয়ে আবারও রিয়াল মাদ্রিদের সঙ্গে ৯ পয়েন্টের ব্যবধান ঠিক রাখলো বার্সেলোনা। ২৫ ম্যাচ শেষে বার্সার অর্জন ৬৫ পয়েন্ট। সমান সংখ্যক ম্যাচে রিয়ালের অর্জন কেবল ৫৬ পয়েন্ট। ৪৫ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে রয়েছে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ এবং ২৫ ম্যাচে ৩৩ পয়েন্ট নিয়ে ৯ম স্থানে রয়েছে অ্যাথলেটিক বিলবাও।

এই ম্যাচে নিশ্চিত ২টি পয়েন্ট হারাতে পারতো বার্সা। তবে ভিএআরের কল্যাণে বেঁচে গেছে তারা। ম্যাচের ৮৮তম মিনিটে গোল পরিশোধ করেছিলো অ্যাথলেটিক বিলবাও।

৮৮ মিনিটে ইনিয়াকি উইলিয়ামসের গোলে সমতায় ফেরার উদযাপনে মাতে বিলবাও। দুই মিনিট পরই ভিএআর জানায়, গোলটি ছিল অবৈধ। বল দখলের সময়ে বিলবাওয়ের ইকার মুনিয়াইনের হাতে লেগেছে বল। ফলে গোল বাতিল।

অথচ, তার আগে ভিএআরের কল্যাণেই জয়সূচক গোলটি পেয়েছিলো বার্সা। প্রথমার্ধের যোগ করা সময়ে (৪৫+১ মিনিটে) সার্জিও বুসকেটসের পাসে শট নেন রাফিনহা। বল জড়িয়ে যায় অ্যাথলেটিকো বিলবাওয়ের জালে। কিন্তু গোলটিকে অফসাইডের অজুহাতে বাতিল করে দেন রেফারি। পরে ভিএআর দেখে রাফিনহার গোলটিকে সঠিক বলে রায় দিতে বাধ্য হন রেফারি।

বিলবাওয়ের মাঠে ম্যাচের শুরু থেকেই আক্রমণ প্রতি আক্রমণে খেলতে থাকে উভয় দল। ১৭তম মিনিটেই বিলবাওয়ের রক্ষণভেদ করে আক্রমণ চালায় বার্সা তারকা রবার্ট লেওয়ানডস্কি। পোলিশ তারকার নেওয়া শট অবশ্য ঠেকিয়ে দেন বিলবাও গোলরক্ষক। ৩২তম মিনিটে বিলবাও প্রথম পরীক্ষা নেয় বার্সার গোলরক্ষকের। বিলবাওর জন্য দেওয়াল হয়ে দাঁড়ান টের স্টেগানও।

দ্বিতীয়ার্ধে বেশ কিছু আক্রমণ করেও ম্যাচের ফল বদলাতে পারেনি বিলবাও। ফলে শেষ পর্যন্ত ১-০ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে জাভি হার্নান্দেজের শিষ্যরা।

ভিএআরের কল্যাণে কষ্টার্জিত জয় বার্সার

প্রকাশের সময় : ০১:১০:২৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৩ মার্চ ২০২৩

স্প্যানিশ লা লিগায় বার্সেলোনার ভাগ্য ভালোই বলতে হবে। পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে থেকে শিরোপার পথে এগিয়ে চলছে তারা; কিন্তু পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে ওঠার জন্য যে জয়গুলো তাদের ঝুলিতে জমা হচ্ছে, সেগুলোর অধিকাংশই আসছে মাত্র ১-০ গোলের ব্যবধানে। সংশ্লিষ্ট ম্যাচগুলোতে যদি ওই একটি গোল না হতো! তাহলে বর্তমান অবস্থানে আসা তাদের পক্ষে সম্ভবই ছিল না।

রোববার রাতেও বার্সা জয় পেয়েছে। অ্যাথলেটিক বিলবাওয়ের মাঠে গিয়ে ১-০ গোলের ব্যবধানে জয় নিয়ে ঘরে ফিরেছে জাভি হার্নান্দেজের শিষ্যরা। বার্সার এই জয়ে একমাত্র গোলটি এসেছে ব্রাজিলিয়ান তারকা রাফিনহার পা থেকে।

মূলত ভিএআরেই রক্ষা পেয়েছে বার্সা। তাদের গোলটি এসেছে ভিএআরের কল্যাণে। আবার বিলবাওয়ের একটি গোল বাতিল হয় ভিএআরের কারণে। উল্টোটা হলে তো বার্সাকে পরাজয় নিয়েই মাঠ ছাড়তে হতো।

এই জয়ে আবারও রিয়াল মাদ্রিদের সঙ্গে ৯ পয়েন্টের ব্যবধান ঠিক রাখলো বার্সেলোনা। ২৫ ম্যাচ শেষে বার্সার অর্জন ৬৫ পয়েন্ট। সমান সংখ্যক ম্যাচে রিয়ালের অর্জন কেবল ৫৬ পয়েন্ট। ৪৫ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে রয়েছে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ এবং ২৫ ম্যাচে ৩৩ পয়েন্ট নিয়ে ৯ম স্থানে রয়েছে অ্যাথলেটিক বিলবাও।

এই ম্যাচে নিশ্চিত ২টি পয়েন্ট হারাতে পারতো বার্সা। তবে ভিএআরের কল্যাণে বেঁচে গেছে তারা। ম্যাচের ৮৮তম মিনিটে গোল পরিশোধ করেছিলো অ্যাথলেটিক বিলবাও।

৮৮ মিনিটে ইনিয়াকি উইলিয়ামসের গোলে সমতায় ফেরার উদযাপনে মাতে বিলবাও। দুই মিনিট পরই ভিএআর জানায়, গোলটি ছিল অবৈধ। বল দখলের সময়ে বিলবাওয়ের ইকার মুনিয়াইনের হাতে লেগেছে বল। ফলে গোল বাতিল।

অথচ, তার আগে ভিএআরের কল্যাণেই জয়সূচক গোলটি পেয়েছিলো বার্সা। প্রথমার্ধের যোগ করা সময়ে (৪৫+১ মিনিটে) সার্জিও বুসকেটসের পাসে শট নেন রাফিনহা। বল জড়িয়ে যায় অ্যাথলেটিকো বিলবাওয়ের জালে। কিন্তু গোলটিকে অফসাইডের অজুহাতে বাতিল করে দেন রেফারি। পরে ভিএআর দেখে রাফিনহার গোলটিকে সঠিক বলে রায় দিতে বাধ্য হন রেফারি।

বিলবাওয়ের মাঠে ম্যাচের শুরু থেকেই আক্রমণ প্রতি আক্রমণে খেলতে থাকে উভয় দল। ১৭তম মিনিটেই বিলবাওয়ের রক্ষণভেদ করে আক্রমণ চালায় বার্সা তারকা রবার্ট লেওয়ানডস্কি। পোলিশ তারকার নেওয়া শট অবশ্য ঠেকিয়ে দেন বিলবাও গোলরক্ষক। ৩২তম মিনিটে বিলবাও প্রথম পরীক্ষা নেয় বার্সার গোলরক্ষকের। বিলবাওর জন্য দেওয়াল হয়ে দাঁড়ান টের স্টেগানও।

দ্বিতীয়ার্ধে বেশ কিছু আক্রমণ করেও ম্যাচের ফল বদলাতে পারেনি বিলবাও। ফলে শেষ পর্যন্ত ১-০ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে জাভি হার্নান্দেজের শিষ্যরা।