মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

জন্মদিনে পূর্ণিমাকে ফেরদৌসের অবাক করা উপহার

সম্রাট আকবর ।।

রূপালি পর্দার জনপ্রিয় অভিনেত্রী পূর্ণিমা। পর্দায় তেমন একটা দেখা যায় না এই নায়িকাকে তবুও তরুণদের কাছে এখনো তার জনপ্রিয়তা এতটুকু কমেনি। গতকাল ১১ জুলাই এই নায়িকার জন্মদিন ছিল।

পূর্ণিমার জন্মদিনে তাকে উপহার দিলেন তারই সহকর্মী ফেরদৌস। তবে যেমন তেমন কোনো উপহার নয়, তিনি উপহার দিয়েছেন পুরোনো স্মৃতি। অবাক হলেও এটাই সত্যি। ফেরদৌস একটি ভিডিও বার্তায় পূর্ণিমাকে এই উপহার দেন। ভিডিওর শুরুতে পূর্ণিমাকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানিয়ে ফেরদৌস বলেন, ‘তোমার বাসায় ফুল ও গিফট পাঠিয়েছি। নিশ্চয় তুমি পেয়েছ। এবার তোমার জন্য একটি ভার্চুয়াল প্রেজেন্টেশন তৈরি করেছি। এটা দেখলে তুমিও স্মৃতিকাতর হবে।’

এরপরই ভিডিওতে দেখা যায়, পূর্ণিমা ও ফেরদৌস অভিনীত ‘সন্তান যখন শত্রু’ ছবির একটি গান- ‘এমন মিষ্টি একটা বউ’।  গানটির ভিডিও শেষ করার পর একই গানের মঞ্চ পারফর্মের ভিডিও দেখানো হয়। যেখানে ইটিভির মঞ্চে একই গানের সঙ্গে পূর্ণিমা ও ফেরদৌসকে নাচতে দেখা যায়।

উল্লেখ্য, চট্টগ্রামের ফটিকছড়িতে ১৯৮১ সালের ১১ জুলাই জন্মগ্রহণ করেন পূর্ণিমা। চট্টগ্রামেই কেটেছে তার শৈশব ও প্রাথমিক শিক্ষা জীবন। অভিনয়ের প্রতি আগ্রহ থেকেই চলচ্চিত্রে নাম লেখান। জাকির হোসেন রাজু পরিচালিত ‘এ জীবন তোমার আমার’ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে ১৯৯৮ সালে ঢাকাই চলচ্চিত্রে পথচলা শুরু করেন পূর্ণিমা। এই ছবিতে তার বিপরীতে ছিলেন রিয়াজ। প্রথম ছবিতেই বাজিমাৎ করেন পূর্ণিমা। এরপর প্রায় দুই যুগের অভিনয় ক্যারিয়ারে শতাধিক দর্শকনন্দিত ছবি উপহার দিয়েছেন। পাশাপাশি ছোট পর্দা, অর্থাৎ টেলিভিশনেও করেছেন চমৎকার কিছু কাজ। কাজী হায়াৎ পরিচালিত ‘ওরা আমাকে ভালো হতে দিল না’ ছবির জন্য পূর্ণিমা সেরা অভিনেত্রী হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জন করেন।

২০০৭ সালের ৪ নভেম্বর পারিবারিকভাবে আহমেদ জামাল ফাহাদের সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন তিনি। ২০১৪ সালের ১৩ এপ্রিল কন্যাসন্তান জন্ম দেন এ অভিনেত্রী। মেয়ের নাম রেখেছেন তিনি আরশিয়া উমাইজা। স্বামী সংসার নিয়ে বেশ কেটে যাচ্ছে পূর্ণিমার দিন।

আপনার মন্তব্য লিখুন

লেখকের সম্পর্কে

Shahriar Hossain

পুলিশের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন হয় এমন কাজ থেকে বিরত থাকুন- এসপি 

জন্মদিনে পূর্ণিমাকে ফেরদৌসের অবাক করা উপহার

প্রকাশের সময় : ০৯:৩৩:৫৫ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৩ জুলাই ২০১৯

সম্রাট আকবর ।।

রূপালি পর্দার জনপ্রিয় অভিনেত্রী পূর্ণিমা। পর্দায় তেমন একটা দেখা যায় না এই নায়িকাকে তবুও তরুণদের কাছে এখনো তার জনপ্রিয়তা এতটুকু কমেনি। গতকাল ১১ জুলাই এই নায়িকার জন্মদিন ছিল।

পূর্ণিমার জন্মদিনে তাকে উপহার দিলেন তারই সহকর্মী ফেরদৌস। তবে যেমন তেমন কোনো উপহার নয়, তিনি উপহার দিয়েছেন পুরোনো স্মৃতি। অবাক হলেও এটাই সত্যি। ফেরদৌস একটি ভিডিও বার্তায় পূর্ণিমাকে এই উপহার দেন। ভিডিওর শুরুতে পূর্ণিমাকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানিয়ে ফেরদৌস বলেন, ‘তোমার বাসায় ফুল ও গিফট পাঠিয়েছি। নিশ্চয় তুমি পেয়েছ। এবার তোমার জন্য একটি ভার্চুয়াল প্রেজেন্টেশন তৈরি করেছি। এটা দেখলে তুমিও স্মৃতিকাতর হবে।’

এরপরই ভিডিওতে দেখা যায়, পূর্ণিমা ও ফেরদৌস অভিনীত ‘সন্তান যখন শত্রু’ ছবির একটি গান- ‘এমন মিষ্টি একটা বউ’।  গানটির ভিডিও শেষ করার পর একই গানের মঞ্চ পারফর্মের ভিডিও দেখানো হয়। যেখানে ইটিভির মঞ্চে একই গানের সঙ্গে পূর্ণিমা ও ফেরদৌসকে নাচতে দেখা যায়।

উল্লেখ্য, চট্টগ্রামের ফটিকছড়িতে ১৯৮১ সালের ১১ জুলাই জন্মগ্রহণ করেন পূর্ণিমা। চট্টগ্রামেই কেটেছে তার শৈশব ও প্রাথমিক শিক্ষা জীবন। অভিনয়ের প্রতি আগ্রহ থেকেই চলচ্চিত্রে নাম লেখান। জাকির হোসেন রাজু পরিচালিত ‘এ জীবন তোমার আমার’ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে ১৯৯৮ সালে ঢাকাই চলচ্চিত্রে পথচলা শুরু করেন পূর্ণিমা। এই ছবিতে তার বিপরীতে ছিলেন রিয়াজ। প্রথম ছবিতেই বাজিমাৎ করেন পূর্ণিমা। এরপর প্রায় দুই যুগের অভিনয় ক্যারিয়ারে শতাধিক দর্শকনন্দিত ছবি উপহার দিয়েছেন। পাশাপাশি ছোট পর্দা, অর্থাৎ টেলিভিশনেও করেছেন চমৎকার কিছু কাজ। কাজী হায়াৎ পরিচালিত ‘ওরা আমাকে ভালো হতে দিল না’ ছবির জন্য পূর্ণিমা সেরা অভিনেত্রী হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জন করেন।

২০০৭ সালের ৪ নভেম্বর পারিবারিকভাবে আহমেদ জামাল ফাহাদের সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন তিনি। ২০১৪ সালের ১৩ এপ্রিল কন্যাসন্তান জন্ম দেন এ অভিনেত্রী। মেয়ের নাম রেখেছেন তিনি আরশিয়া উমাইজা। স্বামী সংসার নিয়ে বেশ কেটে যাচ্ছে পূর্ণিমার দিন।