মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ঠাকুরগাঁওয়ে জীবাণুনাশক স্প্রে শুরু করেছে রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি

আরিফুজ্জামান আরিফ : ঠাকুরগাঁও।।

বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত করোনা শনাক্ত রোগী ৪৮ জন। সরকারি হিসাবে মোট মৃত্যু হয়েছে ৫ জনের। এ মহামারী রোগ যাতে আর বিস্তার লাভ না করে এরই ধারাবাহিকতায় ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতাল ও শহরের গুপুত্বপুর্ণ পয়েন্টে যানবাহনসহ বিভিন্ন স্থান জীবণুমুক্ত করতে জীবাণুনাশক স্প্রে কার্যক্রম শুরু করেছে বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি (বিডিআরসি) ঠাকুরগাঁও ইউনিট।
রোববার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত এ কার্যক্রম চালায় এই সংগঠনটি। ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে জরুরি বিভাগসহ বিভিন্ন স্থানে জীবাণুনাশক স্প্রে কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির ঠাকুরগাঁও ইউনিট চেয়ারম্যান মুহাম্মদ সাদেক কুরাইশী,সেক্রেটারী সৈয়দ সোলায়মান ও জীবন কুমার বিশ্বাসসহ অন্যানরা।
রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির ঠাকুরগাঁও ইউনিট চেয়ারম্যান মুহাম্মদ সাদেক কুরাইশী জানান, এ উদ্যোগ দেশের অন্য সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান, স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন অনুপ্রাণিত হয়ে এগিয়ে এসে নিজ নিজ উদ্যোগে করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় বিশেষ ভূমিকা রাখতে হবে।

আপনার মন্তব্য লিখুন

লেখকের সম্পর্কে

Shahriar Hossain

ঠাকুরগাঁওয়ে জীবাণুনাশক স্প্রে শুরু করেছে রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি

প্রকাশের সময় : ০৫:০৫:২১ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৯ মার্চ ২০২০
আরিফুজ্জামান আরিফ : ঠাকুরগাঁও।।

বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত করোনা শনাক্ত রোগী ৪৮ জন। সরকারি হিসাবে মোট মৃত্যু হয়েছে ৫ জনের। এ মহামারী রোগ যাতে আর বিস্তার লাভ না করে এরই ধারাবাহিকতায় ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতাল ও শহরের গুপুত্বপুর্ণ পয়েন্টে যানবাহনসহ বিভিন্ন স্থান জীবণুমুক্ত করতে জীবাণুনাশক স্প্রে কার্যক্রম শুরু করেছে বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি (বিডিআরসি) ঠাকুরগাঁও ইউনিট।
রোববার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত এ কার্যক্রম চালায় এই সংগঠনটি। ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে জরুরি বিভাগসহ বিভিন্ন স্থানে জীবাণুনাশক স্প্রে কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির ঠাকুরগাঁও ইউনিট চেয়ারম্যান মুহাম্মদ সাদেক কুরাইশী,সেক্রেটারী সৈয়দ সোলায়মান ও জীবন কুমার বিশ্বাসসহ অন্যানরা।
রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির ঠাকুরগাঁও ইউনিট চেয়ারম্যান মুহাম্মদ সাদেক কুরাইশী জানান, এ উদ্যোগ দেশের অন্য সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান, স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন অনুপ্রাণিত হয়ে এগিয়ে এসে নিজ নিজ উদ্যোগে করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় বিশেষ ভূমিকা রাখতে হবে।