রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

আবার সম্পূর্ণ লকডাউনের পথে ব্রিটেন, ঘোষণা বরিসের

প্রভাষক মামুনুর রশিদ ##

ফের সম্পূর্ণ লকডাউন ব্রিটেনে। এই লকডাউন চলতে পারে ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। করোনাভাইরাসের নতুন স্ট্রেন হু হু করে ছড়িয়ে পড়ছে ব্রিটেনে। তা রুখতেই সম্পূর্ণ লকডাউনের পথে হাঁটল ব্রিটেন। সোমবার প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন এই লকডাউনের ঘোষণা করেছেন। প্রায় সাড়ে ৫ কোটি ব্রিটেনবাসীকে এই লকডাউন মেনে চলতে হবে বলে জানা গিয়েছে। স্কুল-কলেজ ফের বন্ধ করে দেওয়া হবে। বাজার দোকানও নির্দেশ মতো খুলতে হবে বলে। একটি টিভি চ্যানেলে জাতীর উদ্দেশে ভাষণ দিতে গিয়ে বরিস এই ঘোষণা করেন।

বরিস বলেছেন, ‘‘অধিকাংশ দেশই সাবধানতার পথে হাঁটছে। টিকা দেওয়ার কাজ যখন চলছে, তখন নতুন স্ট্রেনের ছড়িয়ে পড়া নিয়ন্ত্রণে আমাদের আরও সতর্ক থাকতে হবে। ইংল্যান্ডে আমাদের জাতীয় লকডাউনের পথে হাঁটতে হবে। ফেব্রুয়ারির মাঝামাঝি পর্যন্ত চলতে পারে লকডাউন।

করোনার নতুন স্ট্রেনের সংক্রমণ ক্ষমতা অনেক বেশি। তাই আরও দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে এই ভাইরাস। এর মধ্যে ব্রিটেনে শুরু হয়ছে টিকাকরণ। কিন্তু যত মানুষকে রোজ টিকা দেওয়া হচ্ছে, তার থেকে অনেক বেশি মানুষ কোভিডে আক্রান্ত হচ্ছেন। সেই সংক্রমণ রুখতেই ফের কড়া পদক্ষেপের করল ব্রিটেন।

গতবছর থেকেই ব্রিটেনে করোনার জেরে মৃত্যু হার অনেক বেশি। তার মধ্যে গত ক’দিনে আক্রান্ত যে ভাবে বাড়ছে তা বরিস সরকারের কপালে ভাঁজ ফেলার জন্য যথেষ্ট। সোমবার ২৭ হাজারের বেশি কোভিড নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন বলে জানিয়েছেন বরিস। গত মঙ্গলবার এক দিনে আক্রান্ত হয়েছিলেন ৮০ হাজার।

আপনার মন্তব্য লিখুন

লেখকের সম্পর্কে

Shahriar Hossain

আবার সম্পূর্ণ লকডাউনের পথে ব্রিটেন, ঘোষণা বরিসের

প্রকাশের সময় : ১১:৫০:১৯ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ৫ জানুয়ারী ২০২১

প্রভাষক মামুনুর রশিদ ##

ফের সম্পূর্ণ লকডাউন ব্রিটেনে। এই লকডাউন চলতে পারে ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। করোনাভাইরাসের নতুন স্ট্রেন হু হু করে ছড়িয়ে পড়ছে ব্রিটেনে। তা রুখতেই সম্পূর্ণ লকডাউনের পথে হাঁটল ব্রিটেন। সোমবার প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন এই লকডাউনের ঘোষণা করেছেন। প্রায় সাড়ে ৫ কোটি ব্রিটেনবাসীকে এই লকডাউন মেনে চলতে হবে বলে জানা গিয়েছে। স্কুল-কলেজ ফের বন্ধ করে দেওয়া হবে। বাজার দোকানও নির্দেশ মতো খুলতে হবে বলে। একটি টিভি চ্যানেলে জাতীর উদ্দেশে ভাষণ দিতে গিয়ে বরিস এই ঘোষণা করেন।

বরিস বলেছেন, ‘‘অধিকাংশ দেশই সাবধানতার পথে হাঁটছে। টিকা দেওয়ার কাজ যখন চলছে, তখন নতুন স্ট্রেনের ছড়িয়ে পড়া নিয়ন্ত্রণে আমাদের আরও সতর্ক থাকতে হবে। ইংল্যান্ডে আমাদের জাতীয় লকডাউনের পথে হাঁটতে হবে। ফেব্রুয়ারির মাঝামাঝি পর্যন্ত চলতে পারে লকডাউন।

করোনার নতুন স্ট্রেনের সংক্রমণ ক্ষমতা অনেক বেশি। তাই আরও দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে এই ভাইরাস। এর মধ্যে ব্রিটেনে শুরু হয়ছে টিকাকরণ। কিন্তু যত মানুষকে রোজ টিকা দেওয়া হচ্ছে, তার থেকে অনেক বেশি মানুষ কোভিডে আক্রান্ত হচ্ছেন। সেই সংক্রমণ রুখতেই ফের কড়া পদক্ষেপের করল ব্রিটেন।

গতবছর থেকেই ব্রিটেনে করোনার জেরে মৃত্যু হার অনেক বেশি। তার মধ্যে গত ক’দিনে আক্রান্ত যে ভাবে বাড়ছে তা বরিস সরকারের কপালে ভাঁজ ফেলার জন্য যথেষ্ট। সোমবার ২৭ হাজারের বেশি কোভিড নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন বলে জানিয়েছেন বরিস। গত মঙ্গলবার এক দিনে আক্রান্ত হয়েছিলেন ৮০ হাজার।